এগিয়ে চলছে বইমেলার স্টল নির্মাণের কাজ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৩৯ পিএম, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

শহীদ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ভেতরে জনা বিশেক নির্মাণশ্রমিক সারিবদ্ধভাবে নির্দিষ্ট দূরত্বে বসে আছেন। তাদের সবার হাতে শাবল। তাদের সামনে লম্বা একটি সুতা বাঁধা। সরদার গোছের একজন তাদের উদ্দেশে সংক্ষেপে কি কাজ করতে হবে তা বুঝিয়ে দিলেন। এক সঙ্গে তাল মিলিয়ে শাবল দিয়ে গর্ত খোঁড়া শুরু হলো। এ দৃশ্যপট মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৮টার।

আগামী ১৮মার্চ অনুষ্ঠিতব্য অমর একুশে বইমেলা ২০২১ উপলক্ষে বাংলা একাডেমির মূল প্রাঙ্গণ ছাড়াও অন্যান্য বছরের মতো এ বছরও ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্টল নির্মিত হচ্ছে। গত কয়েকদিন ধরে উদ্যানে বড় বড় বাঁশের চালান এনে জড়ো করা হচ্ছে।

jagonews24

প্রাথমিক পর্যায়ে বাংলা একাডেমি কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন আয়তনের স্টলের জন্য বাঁশ দিয়ে অবকাঠামো তৈরি করছে। স্টল বুঝে পাওয়ার পর বিভিন্ন প্রকাশনী সংস্থা তাদের নিজেদের মতো স্টলগুলো ডেকোরেশন করে নিবে।

jagonews24

প্রতি বছর ১ ফেব্রুয়ারি থেকে অমর একুশে গ্রন্থমেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার রেওয়াজ থাকলেও এ বছর করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে মেলা হবে কি-না তা নিয়ে সংশয় ছিল। অবশেষে ঘোষণা এসেছে আগামী ১৮ মার্চ বইমেলা শুরু হবে।

jagonews24

তবে কত দিন মেলা চলবে, তা এখনো ঠিক হয়নি। কর্তৃপক্ষ বলছে, পরিবেশ পরিস্থিতি অনুকূলে থাকলে ১৪ এপ্রিল পয়লা বৈশাখ পর্যন্ত বইমেলা চলবে।

উল্লেখ্য, ভাষার মাসের প্রথম দিন থেকেই বাংলা একাডেমি চত্বরে বইমেলা শুরু হয়। রেওয়াজ অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী এ বইমেলার উদ্বোধন করে থাকেন। ১৯৮৩ সালে মনজুরে মওলা যখন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক ছিলেন, তখন তিনি বাংলা একাডেমিতে প্রথম অমর একুশে গ্রন্থমেলার উদ্যোগ নেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বইমেলা করা সম্ভব হয়নি। ১৯৮৪ সালে সাড়ম্বরে বর্তমানের অমর একুশে গ্রন্থমেলার সূচনা হয়।

এমইউ/এআরএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]