মৃত্যুর আগে যা লিখে গেলেন অভিনেত্রী

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:২৭ পিএম, ১৩ জুলাই ২০২০

বলিউডে আবারও শোক। এবার চলে গেলেন সম্ভাবনাময়ী এক অভিনেত্রী। প্রতিভা দিয়ে যিনি জানান দিয়েছিলেন চমৎকার একটি ক্যারিয়ারের। কিন্তু ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে অকালেই চলে গেলেন অভিনেত্রী দিব্যা চৌকসে।

২০১৬ সালে ‘হ্যায় আপনা দিল তো আওয়া’র মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন দিব্যা। অভিনেত্রীর মৃত্যুর খবর ফেসবুকে নিশ্চিত করেছেন তার এক বোন সৌম্যা অমিশ বর্মা। তিনি জানান, ক্যানসারের কারণেই মৃত্যুবরণ করেছেন দিব্যা।

তিনি লেখেন, ‘দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি দিব্যা চৌকসি অল্প বয়সেই আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন। ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করছিলেন তিনি। লন্ডন থেকে অভিনয়ের প্রশিক্ষণ নিয়েছিল দিব্যা, মডেল হিসাবেও ও পরিচিত ছিল।..ঈশ্বরের কাছে তার আত্মার শান্তি কামনা করছি।’

এদিকে আলোচনায় এসেছে মৃত্যুর মাত্র কয়েকঘন্টা আগে নিজের শারীরিক পরিস্থিতি সম্পর্কে জানিয়ে দিব্যার লেখা। ইনস্টাগ্রামের স্টোরিতে তিনি লেখেন, আমি মৃত্যুশয্যায় রয়েছি।

তিনি আরও লেখেন, ‘আমি যা বলতে চাইছি সেটা হয়ত শব্দ দিয়ে বোঝাতে পারব না। গত কয়েকমাস ধরে আমি অনেক পালিয়ে বেড়িয়েছি। চারিদিকে অনেক প্রশ্ন। সময় এসে গেছে। তোমাদের সবাইকে বলে দেয়ার যে আমি মৃত্যুশয্যায়। কিন্তু এমনটাও ঘটে, আমি খুব শক্তিশালী যদিও। ফিরে আসব এমন এক জীবন নিয়ে যেখানে কোনো যন্ত্রণা থাকবে না। আর কোনো প্রশ্ন নয়, শুধু ভগবান জানে তোমরা আমার কাছে কতখানি গুরুত্বপূর্ন ছিলে।’

মৃত্যুর আগে তার এই লেখা অনলাইনবাসীদের মন খারাপ করিয়ে দিচ্ছে। এক যুবতী ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে মৃত্যুর কাছে নিশ্চিত পরাজয় জেনে শেষ সময়টাতে যে কষ্ট সয়েছেন সেইটা ভেবে অনেকে আফসোস করছেন। সবাই দিব্যার আত্মার জন্য শান্তি কামনাও করছেন।

জানা গেছে, বেশ কয়েক মাস ধরেই সোশ্যাল মিডিয়া থেকে গায়েব ছিলেন এই অভিনেত্রী। তার শেষ পোস্টটি ছিল ১৪ই মে। দিব্যার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন অভিনেত্রী নীহারিকা রাইজাদা।

এর আগে চলতি বছরের এপ্রিলেই ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান ইরফান খান (577876), ঋষি কাপুর (578124)। মে মাসে মৃত্যু হয় বলিউড অভিনেতা মোহিত বাঘেল, শফিক আনসারি এবং সাই গুন্দেওয়ারের।

এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]