বছরে ২০ কোটি কর দেন কঙ্গনা

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৩০ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

সম্প্রতি বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতকে ‘হারামখোর মহিলা’ বলে আক্রমণ করেন শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। ওই কটাক্ষের জবাব দিয়েছেন অভিনেত্রী। একই সঙ্গে, বছরে ২০ কোটি কর দেন বলেও দাবি করেছেন তিনি।

একটি সংবাদমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেন, ‘হারামখোর’ শব্দের অর্থ হলো ‘মুফতখোর’। অর্থাৎ বিনা অর্থব্যয়ে যার খাওয়া-দাওয়া চলে কিন্তু তিনি ওই কাজটি করেন না। অর্থাৎ বিনামূল্যে তিনি কিছু খান না।’

বলিউড কুইনের দাবি বলেন, প্রতি বছর ১৫-২০ কোটি করে কর দেন তিনি। বলিউড অভিনেত্রীদের মধ্যে তিনিই সবচেয়ে বেশি কর দেন। শুধু তাই নয়, তার যে কর্মীরা রয়েছেন, তাদের অন্নের ব্যবস্থাও তিনিই করেন। তাই তাকে ‘হারামখোর’ মহিলা বলে কেন সঞ্জয় রাউত আক্রমণ করলেন, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন কঙ্গনা।

প্রসঙ্গত, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর বলিউডের একাংশকে ‘মুভি মাফিয়া’ বলে আক্রমণ করেন কঙ্গনা রানাউত। বলিউডের সঙ্গে মাদক চক্র ওতপ্রোতভাবে জড়িত বলেও আক্রমণ করেন অভিনেত্রী। এসবের পাশাপাশি সুশান্তের সাবেক ম্যানেজার দিশা সালিয়ানের মৃত্যুর জেরে যখন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী আদিত্য ঠাকরের নাম উঠে আসতে শুরু করে বিভিন্ন সংবাদমাধ্য়মে, তখনো কড়া আক্রমণ করেন কঙ্গনা।

এরপরই বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেন শিবসেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। বলিউড কুইনের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘শিবসেনা এবং বালাসাহেব ঠাকরের পরিবারকে কালিমালিপ্ত করতেই বিরোধীদের তরফে ওই ধরনের কুৎসা রটনা হচ্ছে।’

এসবের পাশাপাশি কঙ্গনা রানাউতকেও কড়া আক্রমণ করেন শিবসেনা। যার জেরে সম্প্রতি কঙ্গনার মুম্বাইয়ের অফিস ভেঙে দেয়া হয় বলে অভিযোগ। তবে সঞ্জয় রাউতের দাবি, ওই ঘটনার সঙ্গে শিবসেনার কোনো যোগসূত্র নেই। অভিনেত্রীর পালি হিলের অফিসের বেশ কিছুটা অংশ বেআইনি বলেই তা ভেঙে দিয়েছে বিএমসি।

এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]