এমি অ্যাওয়ার্ডে কৃষ্ণাঙ্গদের জয়জয়কার, গড়লেন ইতিহাস

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫৭ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

প্রতিবারের চেয়ে এবার ভিন্ন রকমের এমি অ্যাওয়ার্ড উপভোগ করলো পুরো বিশ্ববাসী। টেলিভিশন জগতের সব থেকে বড় এই অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানটি সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। ৭২তম আসরে হয়েছে বেশ কিছু রেকর্ড।

যার অন্যতম একটি করেছেন কৃষ্ণাঙ্গরা। এবার কৃষ্ণাঙ্গ শিল্পী ও কলাকুশলীরা এমিতে অংশ নিয়ে গড়েছেন নতুন ইতিহাস। এবারের আসরে শুধু পুরস্কার বিজয়েই নয়, পুরস্কারের মনোনয়ন প্রাপ্তদের মধ্যে দেখা গিয়েছিল ৩৩ শতাংশ কৃষ্ণাঙ্গ। যা কিনা এমির ইতিহাসের সকল পর্ব থেকেই ১৪ শতাংশ বেশি।

টেলিভিশন সিরিজ ‘ওয়াচম্যান’- এ দুর্দান্ত অভিনয় করে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতে নিয়েছেন রেগিনা কিং। শুধু তিনিই নন, তার সহশিল্পী ইয়াহিয়া আবদুল মাটেনও জিতেছেন সেরা সহশিল্পীর পুরস্কার।

এদিকে ‘কুইব’ সিরিজে অভিনয় করে আরেক ইতিহাস রচনা করেছেন জোনস এবং তার মেয়ে জেসমিন সিফাস জোন্স। পিতা কন্যা হিসেবে তারাই পৃথিবীর প্রথম কোনো যুগল যারা দুজন একসঙ্গে এমি অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন।

সাথে আরেক কৃষ্ণাঙ্গ অভিনেতা লরেন্স ফিশবার্নও সহায়ক অভিনেতা হিসেবে জিতেছেন অ্যাওয়ার্ডটি। আর এমির এই চূড়ান্ত পর্বের বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন মায়া রুডল্ফ, এডি মারফি এবং রন সিফাস জোন্স। একসঙ্গে এমি অ্যাওয়ার্ডে এত কৃষ্ণাঙ্গের মিলনমেলা এই প্রথম দেখা গেল।

তবে শুধু অভিনেতা-অভিনেত্রীদের ক্ষেত্রে নয়, অসাধারণ উপস্থাপনা জাদু দিয়ে টানা পঞ্চম বারের মত এমি সেরা উপস্থাপকের পুরস্কার জিতে নিয়েছেন রেজিনাল্ড হডলিন।

‘ব্ল্যাক লাইফ ম্যাটারস’- এর ব্যানারে পৃথিবী যখন কৃষ্ণাঙ্গদের দাবি আদায়ের প্রতিবাদে ব্যস্ত, তখন এমিতে কৃষ্ণাঙ্গদের এই সাফল্য সত্যিই চোখে পড়ার মতো, প্রেরণার মতো।

এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]