শাহ আব্দুল করিমের গানে গানে ব্রিটিশ কারি অ্যাওয়ার্ড

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১৪ এএম, ৩০ নভেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০৮:১৫ এএম, ৩০ নভেম্বর ২০১৭

লন্ডনের বেটারসি পার্ক ইভল্যুশন হলে গেল ২৭ নভেম্বর আয়োজন করা হয় ১৩তম ব্রিটিশ কারি অ্যাওয়ার্ডস। বিভিন্ন শাখায় পুরস্কার দেয়ার পাশাপাশি চলে নানা পরিবেশনা। একফাঁকে মঞ্চে ওঠেন সেখানে বসবাসকারী বাংলাদেশি গায়িকা সাঈদা তানি।

আর তখনই পর্দাজুড়ে ভেসে ওঠে বাংলাদেশের কিংবদন্তির সংগীতসাধক শাহ্ আব্দুল করিমের বিশাল ছবি। শাহ আব্দুল করিমকে সম্মান জানাতেই আয়োজকরা এ আয়োজন করে। এ সময় শাহ আব্দুল করিমের ‘আমি কুলহারা কলঙ্কিনী’ এবং ‘বসন্ত বাতাসে সই গো বসন্ত বাতাসে’ পরিবেশন করেন তানি।

উপস্থিত দর্শক-শ্রোতারা বেশ মনোযোগ দিয়ে সাঈদা তানির কণ্ঠে শাহ আব্দুল করিমের গান শোনে এবং করতালি দিয়ে তার প্রতি সম্মান জানায়।

যুক্তরাজ্যের প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, উদ্যোক্তা, বিনোদনজগৎসহ বিভিন্ন মাধ্যমের তারকারা অনুষ্ঠানটিতে উপস্থিত ছিলেন। বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে সশরীরে আসতে পারেননি। তবে চমক হিসেবে হাজির হয়েছেন ভিডিও বার্তায়। তিনি বলেছেন, ‌‘বৃটেনে কারি রেস্টুরেন্টগুলোর জনপ্রিয়তা এখন আর বিস্মিত হওয়ার মতো কোন ঘটনা নয়। আজ যারা বিজয়ী তারা নি:সন্দেহে বৃটেনের সেরা।’ থেরেসা মে বিজয়ী রেস্টুরেন্টের উদেক্তাদের অভিনন্দন জানান।

বৃটিশ কারি অ্যাওয়ার্ডসের প্রতিষ্ঠাতা এনাম আলী এমবিই তার বক্তব্যে বলেন, ‘বাংলাদেশ উন্নয়নের জন্য একটি অসাধারণ জায়গা। কারি শিল্পের চলমান সংকট নিরসনে ১০০ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে। যেখানে কারি শিল্পের সমস্যা সমাধানের বেশকিছু উপায় বাতলে দেওয়া হয়েছে। এই প্রতিবেদন সমস্যা সমাধানের পথে এগিয়ে যাওয়ার রাস্তা খুলে দেবে।’

নানা বিভাগে বিজয়ী গোটা বৃটেনের সেরা কারি রেস্টুরেন্টগুলোর উদ্যেক্তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় পুরস্কার। কারি শিল্পের নিবেদিত প্রাণ মানুষদের সম্মাননা জানানোর পাশাপাশি ছিল রোহিঙ্গা শরণার্থীদের উপরে তৈরি ভিডিওচিত্রের প্রদর্শনী।

এনই/এলএ

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :