গীতিকার রনিমের অভিযোগে মাইলসের প্রতিবাদ

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১০ পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০১৮

জনপ্রিয় ব্যান্ড দল মাইলস। গানের রয়্যাল্টি নিয়ে শাফিন আহমেদ ইস্যুতে সম্প্রতি অনেক জল ঘোলা হয়েছে। এরমধ্যে চলতি সপ্তাহে দলটির বিরুদ্ধে স্বাক্ষর জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন ‘জাতীয় সংগীতের দ্বিতীয় লাইন’ খ্যাত গীতিকার রনিম।

এই গীতিকারের অভিযোগ, ডিস্ট্রিবিউটর কোম্পানিরগুলোর সঙ্গে মাইলসের রয়্যাল্টি চুক্তিপত্রে তার কোনো স্বাক্ষরই নেয়া হয়নি। এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাসও দিয়েছেন রনিম। ‘গীতিকার রনিমের স্বাক্ষরটি রিয়েলিটি চুক্তিপত্রগুলোতে মাইলসের কোনো সদস্য জালিয়াতি করে দিয়ে দিয়েছেন..!?!?’- রনিমের ভাষ্য ছিলো এমনই। সেই স্ট্যাটাসের বরাতে গণমাধ্যমগুলোতে সংবাদ প্রকাশ হয়।

কিন্তু রনিমের অভিযোগ ও তার ভিত্তিতে গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়া সংবাদের বিপরীতে প্রতিবাদ জানিয়েছে ব্যান্ড দল মাইলস। ‘মাইলসের বিরুদ্ধে গীতিকার রনিমের অভিযোগ’- এমন সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে দলটি।

হামিন আহমেদ স্বাক্ষরিত প্রতিবাদ লিপিতে বলা হয়েছে, ‘২০১৭ সালে এসে রনিম কপিরাইট রেজিস্ট্রেশন নিয়ে মাইলসের বিরুদ্ধে স্বাক্ষর জালিয়াতির যে কথা বলেছে, মূলত সে গানটি ২০০৫-২০০৬ সালে রেকর্ড করা হয়েছে। সুতরাং অসৎ উদ্দেশ্য ও হীনস্বার্থ চরিতার্থের জন্য রনিমের আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও অবমাননাকর।’

এদিকে মাইলসের প্রতিবাদ প্রসঙ্গে গীতিকার রনিমকে অবহিত করলে তিনি বলেন, 'মাইলস যদি ২০০৫-২০০৬ সালে রেকর্ডকৃত গানগুলোর সুরকার হিসেবে রয়্যাল্টি পেতে পারে তাহলে আমি সেই গানগুলোর গীতিকার হিসেবে রয়্যাল্টি কেন দাবি করতে পারবো না? এবং মাইলসের কোনো সদস্য আমার স্বাক্ষর জালিয়াতি করে একজন গীতিকারের অধিকার খর্ব করলো সেটা কেন আমি জানতে চাইতে পারবো না? বস্তুত ২০১৭ সালে এসেও একজন গীতিকার কপিরাইট আইনে তার ন্যায্য অধিকারের কথা অবশ্যই বলতে পারবে এবং সেই সঙ্গে কেউ তার স্বাক্ষর জালিয়াতি করলে, তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ও আইনি ব্যবস্থা অবশ্যই নিতে পারবে।'

মাইলস তার প্রতিবাদলিপিতে আরও বলেছে, 'অসৎ উদ্দেশ্য ও হীনস্বার্থ চরিতার্থের জন্য রনিমের আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও অবমাননাকর।’ আমার স্পষ্ট কথা হচ্ছে, মাইলস কি একজন গীতিকারের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে অসৎ কাজ করেনি? আর গীতিকার হিসেবে আমি আমার স্বাক্ষর জালিয়াতির অভিযোগ করেই অসৎ উদ্দেশ্যে পড়ে গেলাম। খুবই দুর্বল, ভিত্তিহীন, যুক্তিহীন ও হাস্যকর কথা। যা মাইলসকে একেবারেই মানায় না।'

তিনি আরও বলেন, 'আমার স্বাক্ষর মাইলসের কোনো সদস্য জালিয়াতি করেছেন, সেই প্রশ্নের উত্তরটা কিন্তু মাইলস এড়িয়ে গেলো। ফলে আপামর জনসাধারণ সবাই সহজেই বুঝতে পেরে গেলেন যে, মাইলসের কোনো এক সদস্য মাইলসের রয়্যাল্টি চুক্তিপত্রগুলোতে গীতিকার রনিমের স্বাক্ষর জালিয়াতি করেছেন এবং যা অবশ্যই দণ্ডনীয় অপরাধ।'

এলএ/এমআরএম/আইআই

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :