৫৭ ধারায় আটক হয়ে কারাগারে নির্মাতা জয়ন্ত রোজারিও

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫৩ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

টেলিভিশন নির্মাতা জয়ন্ত রোজারিওকে ৫৭ ধারায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত ১১ সেপ্টেম্বর জয়ন্তকে মনিপুরী পাড়ার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠানো হয়। তবে এই মামলাকে সাজানো মামলা বলে দাবি করছে জয়ন্ত’র পরিবার। ফেসবুকে পোস্ট করা একটি ভিডিওতে লাইক ও কমেন্ট করার জন্য তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ‘দি খ্রীষ্টিয়ান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন’ নামে একটি অর্থনৈতিক সংগঠনের বর্তমান কমিটিকে ‘অবৈধ’ আখ্যা দিয়ে ‘কুৎসা’ রটিয়ে একটি ভিডিও বানানো হয়। এই ভিডিওকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও সম্মানহানিকর উল্লেখ করে ‘দি খ্রীষ্টিয়ান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন’র পক্ষে মারসেল গোমেজ নামের এক ব্যক্তি তেজগাঁও থানায় ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে ৫৭ ধারায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে একটি মামলা দায়ের করা করেন। মামলা নং ৩৩।

এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়, ‘এক নম্বর আসামি দীপক পিরিছ ভিডিও আপলোড দিয়েছে বাকি আসামিরা সেই ভিডিও লাইক কমেন্ট দিয়ে শেয়ার করেছে। যা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে মনে করেন মারসেল গোমেজ। জয়ন্ত রোজারিও এই মামলার ১৭ নম্বর আসামি।’

মামলা দায়েরের দিনেই জয়ন্তসহ ৫ আসামিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশের পক্ষ থেকে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। আদালত রিমান্ড আবেদন করে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেয়।

জয়ন্ত রোজারিওর বড় ভাই প্লাসিড রোজারিও জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমরা জানি একটা মামলা হওয়ার পর ওয়ারেন্ট জারি হলে আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। কিন্তু কোনো ওয়ারেন্ট ছাড়াই জয়ন্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। থানায় নিয়ে যাওয়ার পর ৫৭ ধারায় মামলা দেওয়া হয়েছে। আমি জয়ন্ত’র সাথে দেখা করেছি সে এসব কিছুই করেনি বলে আমাকে জানিয়েছে।’

এ বিষয়ে তেঁজগাও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, ‘মামলাটি কয়েকদিন আগের। নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিলো। পরে আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে। মামলাটি বর্তমানে বিচারাধীন।’

এদিকে একজন নির্মাতা গ্রেফতার হওয়ায় কোনো কর্মসূচি বা বক্তব্য পাওয়া যায়নি নাট্য নির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টর্স গিল্ড থেকে। সংগঠনের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এস.এম. কামরুজ্জামান সাগর বলেন, নির্বাচনী ব্যস্ততার কারণে এই ঘটনাটি কারো চোখে পড়েনি। জয়ন্ত’র ব্যাপারে খোঁজ খবর নিয়ে দ্রুতই পদক্ষেপ নেয়ার ব্যবস্থা করব।’

জয়ন্ত রোজারিও দীর্ঘদিন রেদোওয়ান রনির সহকারী হিসেবে কাজ করেন। পরে তিনি নিজেই পরিচালনা শুরু করেন।

এলএ/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]