বাংলাদেশের ‘রাজনীতি’ নিয়ে কলকাতায় অপু বিশ্বাস

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩২ পিএম, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বাংলাদেশের চলচ্চিত্র নিয়ে কলকাতায় দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব’। গতকাল শুক্রবার কলকাতার নন্দন চলচ্চিত্র কেন্দ্রের দুই নম্বর প্রেক্ষাগৃহে চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

১৫ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি কলকাতার নন্দন কেন্দ্র ও নজরুল তীর্থে বাংলাদেশের ২৩টি সিনেমা প্রদর্শন করা হবে।

এ ছবিগুলোর তালিকায় আছে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস অভিনীত ‘রাজনীতি’ ছবিটি। বাংলাদেশের ‘রাজনীতি’ ছবিটি এবার দেখার সুযোগ পাবেন কলকাতার দর্শকরা।

এদিকে আয়োজকদের আমন্ত্রণে শনিবার ঢাকা ছেড়েছেন অপু বিশ্বাস। ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব’ শেষ করে ১৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকা ফিরবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব’-এ আমাকে আমন্ত্রণ করার জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ। বাংলাদেশে ও কলকাতার মধ্যে একটা সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। আমরা উভয়েই বাংলা ভাষায় কথা বলি। এ উৎসবের মধ্য দিয়ে আমাদের দেশের চলচ্চিত্র সম্পর্কে জানার সুযোগ পাচ্ছেন কলকাতার দর্শকরা। এ উৎসবে আমার অভিনীত ‘রাজনীতি’ সিনেমাটি প্রদর্শিত হবে। আশা করছি বাংলাদেশের সিনেমাগুলো কলকাতার দর্শক উপভোগ করবেন।

শুক্রবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব, আইসিসিআর দিল্লির মহাপরিচালক রিভা গাঙ্গুলি দাস। বিশেষ অতিথি ছিলেন কলকাতার প্রখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা গৌতম ঘোষ।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের উপ-হাইকমিশনার তৌফিক হাসান।

এছাড়া উৎসবে বাংলাদেশের জয়া আহসান, রিয়াজ, ফেরদৌস অংশ নিয়েছেন। উৎসব আয়োজন করে কলকাতার বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশন। সহযোগিতা করছে বাংলাদেশের তথ্য মন্ত্রণালয়।

উৎসবে বাংলাদেশের ২৩টি ছবির প্রদর্শনী হচ্ছে। গতকাল উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রামাণ্য চলচ্চিত্র ‘আমাদের বঙ্গবন্ধু’ দেখানো হয়। উৎসবের সিনেমাগুলো হলো- ‘পুত্র’, ‘আমাদের বঙ্গবন্ধু’ (প্রামাণ্য চলচ্চিত্র), ‘পোস্টমাস্টার ৭১’, ‘স্বপ্নজাল’, ‘দহন’, ‘রাজনীতি’, ‘হেডমাস্টার’, ‘জীবন ঢুলি’, ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ’, ‘ঘেটুপুত্র কমলা’, ‘নুর মিয়া ও তার বিউটি ড্রাইভার’, ‘গহীন বালুচর’, ‘আলফা’, ‘জান্নাত’, ‘জন্মভূমি’, ‘রাজপুত্র’, ‘পাঠশালা’, ‘সনাতন গল্প’, ‘মহুয়া সুন্দরী’, ‘জাগে প্রাণ পতাকায় জাতীয় সংগীতে’, ‘খাঁচা’, ‘গেরিলা’ ও ‘চিত্রা নদীর পাড়ে’।

এমএবি/এমকেএইচ

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]