বাবাকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্যের আকুতি

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৯ পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন লোকগানের জনপ্রিয় গায়ক কুদ্দুস বয়াতি। খাদ্যনালীর সমস্যায় আক্রান্ত এ শিল্পীকে মহাখালীর বক্ষব্যাধী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য খুব দ্রুত তাকে দেশের বাইরে নেয়া প্রয়োজন বলে জানা গেছে।

এ অবস্থায় বাবাকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চাইলো কুদ্দুস বয়াতির মেয়ে তানহা কুদ্দুস প্রাপ্তি। কুদ্দুস বয়াতির ফেসবুকে সে বাবাকে বাঁচানোর আকুতি জানিয়েছে।

বাবার ফেসবুকে তানহা কুদ্দুস প্রাপ্তির লেখাটি হুবুহু তুলে ধরা হলো :

‘আমার আব্বুকে হারাতে চাই না......
আমি তানহা কুদ্দুস প্রাপ্তি,
আমি আপনাদের সবার প্রিয় শিল্পী কুদ্দুস বয়াতী'র ছোট মেয়ে। আপনারা জানেন আজ কয়েক দিন যাবত আমার আব্বু জাতীয় বক্ষব্যাধী হাসপাতালে চিকিৎসাদিন অবস্থায় আছে। মুখে কোন খাবারই খেতে পারছে না, খাদ্য নালি বন্ধ হয়ে যাওয়ায়। এখন একমাত্র স্যালাইনই আব্বুর ভরসা। ডা. বলেছে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুব দ্রুত দেশের বাহিরে নিয়ে অস্ত্রপাচার করার জন্য। বাবার ফুসফুসের অবস্থা ভিষন খারাপ হয়ে গেছে। তাই আমার আব্বুকে বাঁচাতে হলে ৩০ লাখ টাকা প্রয়োজন। যা আমাদের সাধ্যের বাহিরে।তাই মমতাময়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা'র কাছে আমার আকুল আবেদন -আব্বুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সহায়তা করুন। আমি আব্বুকে হারাতে চাই না।’

এদিকে কুদ্দুস বয়াতির ছেলে ইলিয়াস সম্প্রতি জাগো নিউজকে বলেন, ‘গত ৭-৮ দিন ধরে কিছুই খেতে পারছিলেন না আব্বা। গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে আমরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করাই। মহাখালীর বক্ষব্যাধি হাসপাতালের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছেন তিনি।’

উল্লেখ্য, এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানও পেয়েছেন কুদ্দুস বয়াতি। গত বছর ৮ নভেম্বর লোকশিল্পী কুদ্দুস বয়াতিকে ২০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সময় আরও সরকারি অনুদান পেয়েছেন প্রবীর মিত্র ও নায়িকা নূতন।

এসএইচএস/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com