ঝুঁকিপূর্ণ গাছ সরানোর দাবি ইলিয়াস কাঞ্চনের

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪২ পিএম, ০৪ এপ্রিল ২০১৯

ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকা গাছ কালবৈশাখী ঝড়ে ভেঙে পড়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে রাজধানীতে। এসব গাছ চিহ্নিত করে আগেই তা অপসারণের দাবি জানিয়েছেন ইলিয়াস কাঞ্চন। সম্প্রতি রাজধানীর শাহবাগে শিশু একাডেমি সংলগ্ন দোয়েল চত্বরের সামনে একটি নারকেল গাছ ভেঙে সিএনজি ও রিকশার উপর পড়ে মিতু নামে এক তরুণী নিহত হন।

দুর্ঘটনায় নিহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করে সড়কের পাশে এমন ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকা গাছ অপসারণের দাবি জানিয়ে ছিলেন নিসচা প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন। সেই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে শিশু একাডেমি সংলগ্ন দোয়েল চত্বরের সামনে ভেঙে পড়া নারকেল গাছসহ বিভিন্ন গাছপালার ঝুঁকিপূর্ণ ডালপালা কেটে পরিষ্কার করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

এদিকে গত ১ এপ্রিল ঢাকার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড়ের তাণ্ডবে দুজন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। গত রোববার সন্ধ্যার পর ঝড় শুরু হলে ভবন থেকে ইট পড়ে এক চা দোকানি এবং গাছ ভেঙে এক নারী নিহত হন। সংসদ ভবন এলাকা ও পুরানা পল্টন মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ঢাকার গুলশান, ধানমন্ডি, ফার্মগেট ও পুরান ঢাকাসহ অধিকাংশ এলাকায় ঝড়ের সময় বিদ্যুতের সমস্যা হয়। আবার অনেক এলাকায় গাছ পড়ে বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে যায়। রাস্তায় পানি জমে যায়। রাজধানী ঘুরে দেখা গেছে, এখনও অনেক এলাকা রয়েছে যেসব স্থানের গাছপালা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে।

এপ্রিল মাসে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের আরও তিনটি কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যেতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। সব মিলিয়ে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে এখনো ঝুঁকিপূর্ণ গাছ আছে।

এ অবস্থায় ইলিয়াস কাঞ্চন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে সড়কের পাশে এমন ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকা গাছ, দেয়াল, বাড়ি, বিদ্যুতের খুঁটিসহ সব কিছু অপসারণ করে সড়ককে নিরাপদ করার জন্য আবারও দাবি জানিয়েছেন।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘গাছ চাপা পড়ে সড়কে মৃত্যু সাম্প্রতিককালে অনেক ঘটেছে এ দুর্ঘটনারোধে আমাদের কার্যকর ভূমিকা এখনই গ্রহণ করতে হবে। আমাদের দেশে অধিকাংশ ক্ষেত্রে পরিকল্পনাহীন ভাবে রাস্তার ধারে, পাবলিক প্লেসে গাছ লাগানো হয়। ফলে গাছ ঠিকভাবে বাড়ে না, ফল দেয় না, অকালেই মরে যায়।

মাটির গুণাগুণ পরীক্ষা করে সে অনুযায়ী রাস্তার ধারে বা পাবলিক প্লেসে গাছ লাগাতে হবে। গাছ অতিরিক্ত বয়স্ক ও রোগাক্রান্ত হলে সামান্য বাতাসে ভেঙে পড়তে পারে। প্রতিটি গাছের যথাযথ পরিচর্যা করতে হবে, ভেঙে পড়ার আগেই সরিয়ে ফেলতে হবে।’

ইলিয়াস কাঞ্চন আরও বলেন, রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যেখানে ঝুঁকিপূর্ণ এমন গাছ রয়েছে তা দ্রুত অপসারণ করে নিরাপদ করে তোলার আহ্বান জানাই। যাতে ঝড়ের সময় কোন মারাত্মক দুর্ঘটনার শিকার কেউ না হয়।

এমএবি/এলএ/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]