‘মানুষের ভাবনাকে উসকে দেবে ‘লিলিথ’

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩০ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

‘মুভি অব দ্য প্ল্যানেট’ স্লোগান নিয়ে নির্মিত হয়েছে চলচ্চিত্র ‘লিলিথ’। অপর্ণা ঘোষ ও আরমান পারভেজ মুরাদের পাশাপাশি চলচ্চিত্রটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন এর নির্মাতা কামরুল হাসান নাসিম। তিনি জাগো নিউজের সঙ্গে বলেছেন তার সিনেমা নির্মাণের ভাবনার কথা-

জাগো নিউজ : রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে আপনার পরিচিতি আছে। নির্মাণে কেন এলেন?
কামরুল হাসান নাসিম : আমার চরিত্রে সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক দু’টো সত্তাই রয়েছে। মানুষকে নিয়ে যা ভাবি তা বড় মঞ্চে বলতে পারলে সমাজ ও রাষ্ট্রের উপকৃত হওয়ার পথটা প্রশস্ত হয়। ঠিক একইভাবে আমার কাছে মনে হয়েছে, চলচ্চিত্র নির্মাণ করবার মধ্য দিয়ে মানুষের কল্যাণে কাজ করার এমন একটা সড়ক ধরা দেয়, তখন ওই সড়কের পথিক হতে পারাটা দারুণ একটা ব্যাপার।

জাগো নিউজ : ‘লিলিথ’ কী তবে সেই সড়ক তৈরি করে দিতে পারবে? যেখানে আপনি বা আপনার সম ভাবনার মানুষেরা সফল পথিক হতে পারেন....
কামরুল হাসান নাসিম : ‘লিলিথ’ মূলত একটা প্রচেষ্টা, যার মাধ্যমে পৃথিবীতে মানুষের চূড়ান্ত ভুমিকা কি তা গল্পের মধ্য দিয়ে আবিস্কারের চেষ্টা করা হয়েছে। এটুকু বলতে পারি যে মানুষের ভাবনাকে উসকে দিবে ‘লিলিথ’। কোনো শ্রেণিভুক্ত দর্শককে টার্গেট নয়, যারা মানুষ হতে পেরেছে বা চায় তাদের জন্যই এই সিনেমা নির্মাণ করেছি।

জাগো নিউজ : এটিকে ‘মুভি অব দ্য প্ল্যানেট’ কেন বলছেন আপনি?
কামরুল হাসান নাসিম : আমার মনে হয়, ‘লিলিথ’ পৃথিবীর তাবৎ বিষয়কে সামনে আনতে পেরেছে, পেরেছে মহাকাশের মহাসড়কে যেতেও। এর ভেতর দিয়ে মানুষের জাগতিক ও আধ্যাত্মিক চিন্তার একটি পরিভ্রমণ ঘটবে। এটি নির্দিষ্ট কোনো দেশ-জাতি গোষ্ঠির জন্য নির্মিত হয়নি। সমগ্র পৃথিবীর মানুষই এর দর্শক। সঙ্গত কারণেই ‘লিলিথ’-কে মুভি অব দ্য প্ল্যানেট বলা হচ্ছে।

জাগো নিউজ : চলচ্চিত্রটিতে আপনি নিজেই প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এর কারণ কি?
কামরুল হাসান নাসিম : এই ফিল্মে কেন্দ্রীয় চরিত্রের নাম ঈশ্বরমিত্র। এ চরিত্রের মুখে দীর্ঘক্ষণ ধরে ডায়ালগ রয়েছে ছবিতে। যা বলবার অভিনেতা খুঁজে পাওয়া যায়নি। অনেক বড় বড় থিয়েটার ব্যাকগ্রাউন্ডের অভিনেতাদেরও অফার করা হয়েছিল। তারাও সাহস করতে পারেনি। আর বেশ কয়েক বছর ধরেই ‘ঈশ্বরমিত্র’ চরিত্রটিকে আমি ধারণ করছি।

জাগো নিউজ : দেশের প্রেক্ষাগৃহে চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাবে না বলছেন। কেন?‘
কামরুল হাসান নাসিম : ‘লিলিথ’ সকলেই দেখতে পারে। চিন্তাশীল মানুষ ‘লিলিথ’ দেখে উপভোগ করবে এটাও সত্য। হয়তো সিনেমা হলে ‘শিস’ বাজানো দর্শকদের ‘লিলিথ’ দেখে ভাল লাগবার কারণ নেই। তবে, ক্ষণে ক্ষণে তাদের মনেও উঁকি দিতে পারে অনেক কিছু, বদলে দিতে পারে তার জীবনকেও। দেশের পরিবেশকদের এখনও এ ধরণের চলচ্চিত্র দর্শকের সামনে হাজির করার রুচিবোধ তৈরি হয়নি।

জাগো নিউজ : লিলিথ মুক্তির পরিকল্পনা কি?
কামরুল হাসান নাসিম : বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে ‘লিলিথ’ মুক্তি পাবে। উৎসবেও ঘুরবে। পুরো পরিকল্পনাটা শিগগিরই একটি আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে সবাইকে জানাবো।

এলএ/এমকেএইচ

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]