ভালো কাজের তৃষ্ণা বাড়ালো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার : ফরিদ আহমেদ

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:১৬ পিএম, ০৭ নভেম্বর ২০১৯

সংগীত পরিচালক ফরিদ আহমেদ। ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদির থিম সংয়ের সংগীত পরিচালক ছিলেন তিনি। আড়ালে থেকেই গানের সুর-সংগীত তৈরির কাজ করেন তিন দশক ধরে। তার সংগীতায়োজনে জনপ্রিয় হয়েছে অনেক গান। এবার তার ক্যারিয়ারে যোগ হলো নতুন পালক। ২০১৭ সালের সংগীত পরিচালক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন ফরিদ আহমেদ।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্প অবলম্বনে নির্মিত ‘তুমি রবে নীরবে’ সিনেমার সংগীত পরিচালনার জন্য এ পুরস্কার পেলেন তিনি। ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত এই সিনেমার পরিচালক ছিলেন মাহবুবা ইসলাম। সিনেমাটির ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক করেছিলেন ফরিদ আহমেদ।

প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়ে খুশি এই গানের মানুষটি। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়ার অনুভূতি ব্যক্ত করে ফরিদ আহমেদ জাগো নিউজকে বলেন, ‘অনেক বছর ধরে সংগীত পরিচালক হিসেবে কাজ করলেও সিনেমার গানের সংগীত পরিচালক হিসেবে কম কাজ করা হয়েছে। মাঝে ২০০৪ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত সিনেমার কাজ করিনি।’

এরপর ‘গহীনে শব্দ’ সিনেমার মাধ্যমে আবারও সিনেমার গানের সংগীত পরিচালনায় ফিরি। সিনেমায় আলম খান ও আনোয়ার পারভেজের সঙ্গে সংগীত পরিচালনা করেছি অনেক দিন। আমি ব্যক্তিগতভাবে সিনেমার কাজ করেছি অল্প। যতটুকু কাজ করেছি সেই কাজেরই মূল্যায়ন হলো।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাচ্ছি এটা আমার জন্য একটা বড় পাওয়া। অল্প কাজ করেই আমি গুণীজনদের নজরে পড়তে পেরেছি এটা অনেক সৌভাগ্যের। কাজের প্রতি দায়টা আরও বেড়ে গেল। আগামীতে আরও ভালো গান উপহার দিতে চাই।

‘গহীনে শব্দ’ ‘লালচর’, ‘যতো প্রেম ততো জ্বালা’ এমন বেশকিছু সিনেমার সংগীত পরিচালনা করেছেন ফরিদ আহমেদ। এছাড়া অসংখ্য নাটকের সংগীতায়োজন করেছেন। কয়েক বছর আগে তার সংগীত করা ‘ললিতা’ নামের গান বেশ শ্রোতাপ্রিয় হয়েছিল।

এমএবি/এলএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]