কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে দেখানো হলো ‘ন ডরাই’

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:১৯ পিএম, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯

সমুদ্রের ঢেউ তরঙ্গে সার্ফ বোর্ডে ভেসে বেড়ানো এক বাঙালী নারীর জীবনের সত্য গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে স্টার সিনেপ্লেক্স প্রযোজিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘ন ডরাই’। সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে ২৯ নভেম্বর। দেশে সার্ফিং নিয়ে এই প্রথম কোনো চলচ্চিত্র নির্মাণ হলো।

তানিম রহমান অংশু পরিচালিত এই সিনেমায় অভিনয় করেছেন সুনেরাহ ও শরীফুল রাজ। মডেল হিসেবে দুজনেই পরিচিত হলেও এবার তারা জুটি বেঁধে প্রথম বড়পর্দায় হাজির হয়েছেন। মুক্তির পর থেকেই নানা আলোচনা সমালোচনা চলছে সিনেমাটি নিয়ে।

এরই মধ্যে সম্প্রতি কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে সিনেমাটির এক বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশের প্রথমবারের মতো কোনো সিনেমার ‘বিচ প্রিমিয়ার’ এটি। ৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় কক্সবাজারের সায়মান বিচ রিসোর্টের সামনে দেশি-বিদেশি অতিথিদের জন্য প্রদর্শিত হয় ‘ন ডরাই’। এতে উপস্থিত ছিলেন সিনেমাটির প্রযোজক, পরিচালক, অভিনেতা-অভিনেত্রী, কলাকুশলীসহ সংশ্লিষ্ট অনেকে।

no-dorai-2

অনুষ্ঠানে স্থানীয় সার্ফারদেরও এ প্রদর্শনীতে আমন্ত্রণ জানানো হয়। তাদেরকে টি শার্টসহ বিশেষ উপহারও দেয়া হয়। প্রদর্শনী শেষে অতিথিদের জন্য আয়োজন করা হয় বারবিকিউ পার্টি।

আয়োজনে সিনেমাটির প্রযোজক মাহবুব রহমান রুহেল বলেন, ‘ছবির গল্প, নির্মাণশৈলী, চিত্রায়নসহ সবকিছুতে অভিনবত্বের ছাপ রাখার প্রয়াস ছিলো আমাদের। সাহসী নারীর গল্পের পাশাপাশি কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতকে আকর্ষণীয় রূপে পর্দায় উপস্থাপন করতে চেয়েছি। বিচ প্রিমিয়ারও এই নতুনত্বের প্রয়াসের একটি অংশ। ছবি মুক্তির পর থেকে এ যাবৎ দর্শকদের যে সাড়া পেয়েছি তাতে আমার চেষ্টা অনেকখানি সার্থক বলে মনে করি।’

‘ন ডরাই’ সিনেমার প্রায় ৯০ শতাংশ দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে কক্সবাজারে। চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় নির্মিত হয়েছে ছবিটি। এই শব্দের অর্থ ‘ভয় করি না’। সিনেমাটিতে সমাজ ও পরিবারের ভয়কে জয় করে সার্ফার হিসেবে এক নারীর প্রতিষ্ঠার গল্প তুলে ধরা হয়েছে।

এমএবি/এলএ/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]