ইমতুসহ কলকাতায় আটকা ১১ জনের শুটিং ইউনিট

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৯ পিএম, ২৬ মার্চ ২০২০

করোনাভাইরাস ঠেকাতে দেশে দেশে বন্ধ হয়েছে ফ্লাইট। বহু দেশে চলছে লকডাউন। ভারতজুড়ে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছে মোদি সরকার।

এমনি সময় কলকাতায় আটকে আছেন উপস্থাপক ও অভিনেতা ইমতু রাতিশ। তার সাথে আছেন ১১ জনের একটি টিম। যেখানে রয়েছেন চিত্রনায়ক শিপন মিত্র, সাঞ্জু জন, নতুন অভিনেত্রী বন্যি, রাইসাসহ মেকাপম্যান, ক্যামেরাম্যান ও অনেকেই।

কলকাতা থেকে ইমতু জাগোনিউজকে জানান, চলচ্চিত্র পরিচালক ইফতেখার চৌধুরীর একটি ভুতের সিনেমার শুটিংয়ের জন্য আইসল্যান্ড যাবার কথা ছিলো। তার ভিসার জন্য কলকাতায় যান তারা ১৬ ফেব্রুয়ারি। এর মধ্যেই দারা বিশ্বে মহামারি আকার ধারণ করে করোনা। এদিকে কাজ শেষ করে উঠতে না পারায় দেশে ফিরতে পারেননি তারা। বর্তমানে কলকাতার একটি হোটেলে বন্দী হয়ে কাটছে দিন।

ইমতু বলেন, 'এমনভাবে করোনা বিশ্বজুরে মহামারি হয়ে উঠবে সেটা ফেব্রুয়ারিতে বোঝা যায়নি। তাই কোনো রকম শংকা ছাড়াই আমরা এসেছিলাম। সবার পাসপোর্ট ভিসার জন্য জমা ছিলো এম্বাসিতে। জরুরি অবস্থার মধ্যে তাই দেশে ফেরার সুযোগ পাইনি।

আপাতত কলকাতার একটি হোটেলে গৃহবন্দী হয়ে আছি সবাই। কোয়ারেন্টাইনে। টিভি আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখছি করোনার প্রভাব। এই ক্রান্তিলগ্নে নিজের দেশ থেকে দূরে থাকাটা আতঙ্কের মধ্যে অন্যরকম দুঃখ জাগাচ্ছে। সবার কাছে দোয়া চাই যেন সুস্থভাবে দেশে ফিরতে পারি।'

ইমতু জানান, 'কবে যে আসলে ফেরার সুযোগ পাবো জানিনা। একটা অনিশ্চিত ঝুঁকির মধ্যে পড়ে গেলাম। কতদিন এভাবে বিদেশে থাকতে হয় সেটাই এখন দুশ্চিন্তা।'

এছাড়াও বিভিন্ন দেশে কাজের জন্য গিয়ে আটকে আছেন অনেক বাংলাদেশি। করোনার প্রভাব স্থিতিশীল না হওয়া পর্যন্ত এদের দেশে ফেরা একেবারেই অসম্ভব।

এলএ/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com