এন্ড্রু কিশোরের মেয়ে দেশে পৌঁছাবেন ১৪ জুলাই

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:১৮ পিএম, ১১ জুলাই ২০২০

বাবা এন্ড্রু কিশোরকে শেষবারের মতো দেখতে বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে এসে পৌঁছেছেন তার ছেলে এন্ড্রু সপ্তক। এখন অপেক্ষা সপ্তকের বোন এন্ড্রু সঙ্গার জন্য। অবশেষে সঙ্গার দেশে ফেরার ফ্ল্যাইট চূড়ান্ত হয়েছে। আজ শনিবার রাতে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন শহর থেকে দেশের উদ্দেশ্যে যাত্র শুরু করবেন তিনি।

সব কিছু ঠিক থাকলে ১৪ জুলাই রাজশাহীতে বাবার কাছে এসে পৌঁছাবেন সঙ্গা। তিনি দেশে ফিরলে ১৫ জুলাই শেষ সমাধী হবে এন্ড্রু কিশোরের। প্রিয় শিল্পী নিজের পছন্দের স্থানেই শেষ নিদ্রায় যাবেন। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন এন্ড্রু কিশোরের শিষ্য কণ্ঠশিল্পী মোমিন বিশ্বাস।

জানা গেছে, ১৫ জুলাই সকালে প্রথমেই রাজশাহী শহরের স্থানী চার্চে নেওয়া হবে এন্ড্রু কিশোরের মরদেহ। সেখানে প্রার্থনা শেষ করে এন্ড্রু কিশোরের শেষ ইচ্ছে অনুযায়ী তাকে নিয়ে যাওয়া হবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনারে।

এরপর ওই দিন বেলা ১১টা থেকে এক ঘণ্টা ভক্ত শুভাকাঙ্ক্ষীদের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য শহীদ মিনারে রাখা হবে মরদেহ। এরপর তাকে নিয়ে আসা হবে রাজশাহীর কালেক্টরেট মাঠের পাশে খ্রিষ্টানদের কবরস্থানে। সেখানে বাবা-মায়ের কবরের পাশেই এন্ড্রু কিশোরকে সমাহিত করা হবে।

সবরকম প্রস্তুতি নিয়ে এন্ড্রু কিশোরের মরদেহ রাখা হয়েছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের হিমঘরে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে ক্যান্সারে (নন-হজকিন লিম্ফোমা) আক্রান্ত হয়ে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন ছিলেন এন্ড্রু কিশোর। ৯ মাস পর সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন এন্ড্রু কিশোর ১১ জুন রাত আড়াইটার একটি বিশেষ ফ্লাইটে দেশে ফেরেন। তারপর ঢাকার বাসায় বেশকিছু দিন অবস্থান করে শরীরের অবস্থা বিবেচনায় ও কোলাহলমুক্ত থাকতে রাজশাহী চলে যান।

তারপর থেকে সেখানে তার বোনের বাসা সংলগ্ন ক্লিনিকেই ছিলেন। সবাইকে কাঁদিয়ে ৬ জুলাই সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে না ফেরার দেশে চলে গেছেন গানের মহারাজ।

এমএবি/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]