সৃজিত-মিথিলার ঘরে নতুন সদস্য

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:০৪ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০২০

দুই বাংলার জনপ্রিয় দম্পতি হিসেবে সমাদৃত কলকাতার চলচ্চিত্র নির্মাতা সৃজিত মুখোপাধ্যায় ও বাংলাদেশের অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। দুজনে মিলে পেতেছেন সুখের সংসার। তাদের নিয়ে ভক্তদের আগ্রহ তুঙ্গে থাকে সবসময়ই।

তাদের বিয়ের দু-তিন মাস যেতে না যেতেই এসে পড়ে করোনাভাইরাস। সেই ভাইরাসের আক্রমণে কাবু হয়ে পড়ে মানুষ। সবাইকে ঘরে আটকা থাকতে হয়। বন্ধ হয়ে যায় সব বাস, ট্রেন, বিমান। শুরু হয় লকডাউন। ঠিক লকডাউনের আগেই বাংলাদেশে কয়েক দিনের জন্য গিয়েছিলেন মিথিলা।

সেখানেই মেয়েকে নিয়ে আটকে থাকতে হলো গোটা লকডাউনে। প্রেম ভালোবাসা আবদার সব কিছু প্রকাশ করা যেত একমাত্র ভিডিও কল ও সোশ্যাল মিডিয়ায়ই। এর পর লকডাউন হালকা হতেই মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে সোজা কলকাতায় চলে যান মিথিলা। এখন স্বামীর সঙ্গেই রয়েছেন তিনি। আয়োজন চলছে পূজাকে কেন্দ্র করে।

Mithila-01

করোনার কারণে এবারের পূজা কাটবে বাড়িতেই। খুব একটা বাইরে যাওয়ার সুযোগ হবে না। এই ঘরবন্দির সময়টা বড়রা কোনোমতে সয়ে গেলেও বাড়ির ছোটদের জন্য খুব কষ্টের। তাই নিজেদের মেয়ের সময় কাটাতে তারা ঘরে এনেছেন নতুন দুই সদস্য। মিষ্টি দুটি কচ্ছপ ছানা কিনে এনেছেন সৃজিত-মিথিলা।

তাদের মেয়ের জন্যই এই ছানাদের নিয়ে এসেছেন তারা। মিথিলা টুইটারে কচ্ছপের ছবি শেয়ার করে লেখেন, ‘আমাদের পরিবারের নতুন সদস্যদের সঙ্গে আলাপ করুন। হ্যারি এবং হার্মোনি।’

প্রসঙ্গত, বিয়ের পর এবারই প্রথম দুর্গাপূজা পালন করবেন সৃজিত। সঙ্গে আছে স্ত্রী। পূজার আনন্দটা হবে দ্বিগুণ। সেই আনন্দে নতুন মাত্রা যোগ করেছেন কলকাতার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি এ দম্পতিকে উপহার দিয়েছেন নীল শাড়ি ও লাল রঙের পাঞ্জাবি।

সেই উপহার পেয়ে মমতাকে ধন্যবাদ জানাতে ভুলেননি সৃজিত ও মিথিলা।

এলএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]