মুক্তি সিনেমায় জাহিদ আকবরের গান

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৩ পিএম, ২৯ অক্টোবর ২০২০

খোঁজ-দ্য সার্চ, দেহরক্ষী, অগ্নি, অগ্নি ২, রাজত্ব, বিজলী সিনেমা দিয়ে নির্মাণের মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন পরিচালক ইফতেখার চৌধুরী। এবার তিনি নতুন সিনেমা নিয়ে হাজির হচ্ছেন। এটি পরিচালনার পাশাপাশি প্রযোজনাও করবেন তিনি। সে ছবির নাম ‘মুক্তি’। লেডি অ্যাকশনধর্মী এই সিনেমার শুটিং শুরুর প্রস্তুতি চলছে।

তার আগেই তৈরি হলো একটি গান। এ গানের শিরোনাম ‘আগুনের গান গাই’।

‘আমি অঝোর শ্রাবণ দিনে/আগুনের গান গাই’- এমন কথায় সাজানো গানটির কথা লিখেছেন হাবিবের ‘ডুব’খ্যাত গীতিকবি জাহিদ আকবর। সম্প্রতি এই গানের রেকর্ডিং শেষ হয়েছে। জনপ্রিয় তরুণ সুরকার ও সংগীত পরিচালক আহমেদ হুমায়ূনের সুর-সংগীতে এই গানে কণ্ঠ দিয়েছেন দোলা।

গানটি নিয়ে জাহিদ আকবর বলেন, ‘সিনেমার গান লিখতেই সবচেয়ে ভালো লাগে আমার। গেল কয়েক মাসে সিনেমার গানই বেশি লিখেছি। তবে ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত ও প্রথম প্রযোজিত ‘মুক্তি’ সিনেমার ‘আগুনের গান গাই’ শিরোনামের গানটি লিখে সত্যি আরাম পেয়েছি।

সেইসঙ্গে আহমেদ হুমায়ূনের সঙ্গে প্রথম কোনো গান করা হলো। এ প্রজন্মের সংগীত পরিচালকদের মধ্যে তিনি ভালো কাজ করছেন।
তিনিও গানটি নিয়ে আপ্লুত। রেকর্ডিংয়ের সময় অনেকবার বলেছেন গত কয়েক বছরে এমন গান নাকি করেননি আর। গায়কীর বেলায় বলবো যে গানটা কণ্ঠশিল্পী দোলা ছাড়া অন্য কেউ কণ্ঠ দিলে এমন ভালো হতো কী না আমার জানা নেই। একটি শ্রুতিমধুর ও গল্পকে প্রাধান্য দেয়া গান এটি, শ্রোতারা উপভোগ করবেন বলে প্রত্যাশা করছি।’

আহমেদ হুমায়ূন গানটি নিয়ে বলেন, ‘অনেকদিন ধরেই গান করছি। তবে ‘মুক্তি’ ছবির এ গানটি নতুন করে আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে। নিজের কাজ নিজেকে অনুপ্রাণিত করলে ভালই লাগে। বাকিটা শ্রোতারা বিবেচনা করবেন। আমার ক্যারিয়ারে ফিল্মের যত ভালো গান হয়েছে এটি তার মধ্যে অন্যতম হবে বলে মনে করছি আমি। কৃতজ্ঞতা ইফতেখার চৌধুরী ভাইয়ের কাছে এই কাজটি করার সুযোগ দেয়ার জন্য।

অনেক কৃতজ্ঞতা জাহিদ আকবর ভাইয়ের প্রতি। এমন অসাধারণ একটা লিরিক আমাকে দেয়ার জন্য। লিরিকে অনেক পরিশ্রম আছে সেটা পরিস্কার। দোলা আপাও বেশ দারুণ গেয়েছেন ‘আগুনের গান গাই’।’

পরিচালক ইফতেখার চৌধুরী এই গানটিকে তার সিনেমার জন্য অসাধারণ একটি সংযোজন বলে দাবি করেন। তিনি জানান, ছবির নায়িকা রাজ রিপা অসুস্থ। রিপা সেরে উঠলে নভেম্বরের শেষ দিকে শুটিং শুরু হবে।

নোয়াখালীর এক দরিদ্র ও অতি সাধারণ পরিবারের মেয়ে কীভাবে সময়ের প্রয়োজনে অনন্য অসাধারণ হয়ে ওঠেন, তারই ঘটনাপ্রবাহ ফুটে উঠবে এই ছবিতে।

এলএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]