বিজেপিতে যাচ্ছেন না, মমতার তৃণমূলেই আস্থা শতাব্দী রায়ের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০১ এএম, ১৭ জানুয়ারি ২০২১

জল্পনা-কল্পনার ইতি টেনে মমতা বন্দোপাধ্যয়ের তৃণমূল কংগ্রেসে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন অভিনেত্রী শতাব্দী রায়। শুক্রবার (১৬ জানুয়ারি) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বীরভূমের তিনবারের সংসদ সদস্য। শতাব্দী বলেছেন— ‘আমি তৃণমূলেই থাকছি। দলের প্রতি আস্থা আছে।’

বৃহস্পতিবার (১৫ জানুয়ারি) তৃণমূল ছেড়ে নরেন্দ্র মোদির বিজেপিতে যোগ দেয়ার ইঙ্গিত দিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করেন শতাব্দী। ওই পোস্টে তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতি তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেন। এরপর শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। শুক্রবার তার দিল্লি যাওয়ার কথাও ছিল।

তবে তৃণমূল কংগ্রেসের যুব শাখার সভাপতি অভিষেক বন্দোপাধ্যয়ের সঙ্গে বৈঠকের পরই মত বদল করেছেন শতাব্দী রায়। ক্যামাক স্ট্রিটে কুণাল ঘোষের সঙ্গে অভিষেকের অফিসে যান শতাব্দী। ওই বৈঠকেই বাজিমাত! সেখান থেকে বেরিয়েই স্পষ্ট করে জানিয়ে দেন- তিনি তৃণমূলেই থাকছেন।

ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘অনেকেই প্রশ্ন করেছিলেন— আমাকে কেনো এলাকার কোনো প্রোগ্রামে দেখা যাচ্ছে না। অথচ আমি সবসময় এলাকার মানুষের পাশে ছিলাম। কিছু সমস্যা ছিল, কষ্ট পেয়েছিলাম। তবে এবার সব বাধা টপকে এলাকায় থাকব।’

মমতা বন্দোপাধ্যয় ও অভিষেক বন্দোপাধ্যয়ের প্রশংসা করে শতাব্দী আরও লেখেন, ‘অভিষেকের সঙ্গে বৈঠক করে মনের সব কষ্ট দূর হয়ে গেছে। আমি সমস্যাগুলো জানিয়েছি, তিনি মনোযোগ সহকারে শুনেছেন। বিষয়টি ইতিবাচক। আশা করি—এবার সমস্যার সমাধান হবে।’

এদিকে পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতির মাঠ গরম করে বুধবার (২০ জানুয়ারি) সপরিবারে গোয়ায় ছুটি কাটাতে যাচ্ছেন শতাব্দী রায়। ফিরবেন ২৫ জানুয়ারি। গণমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন— কাজের চাপ থেকে বেরিয়ে রিফ্রেশমেন্টের জন্যই তিনি গোয়া ভ্রমণে যাচ্ছেন। ফিরেই তিনি নির্বাচনি কাজে মনোযোগী হবেন।

এএএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]