ছয় বছর পর মুক্তির অনুমতি পেল ‘চন্দ্রাবতীর কথা’

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪৪ পিএম, ০১ মার্চ ২০২১

সেন্সর বোর্ড থেকে আনকাট ছাড়পত্র পেয়েছে সরকারি অনুদানের সিনেমা ‘চন্দ্রাবতীর কথা’। ছবিটির পরিচালক এন রাশেদ চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তার ছবিটি সেন্সর বোর্ডের সদস্যদের কাছে প্রশংসিত হয়েছে বলেও জানান তিনি।

গতকাল রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র হাতে পেয়েছেন পরিচালক।

১ ঘণ্টা ৪৪ মিনিট ২৭ সেকেন্ড ব্যপ্তির এ সিনেমায় উঠে এসেছে বাংলাদেশের প্রথম নারী কবি চন্দ্রাবতীর গল্প। ‘মলুয়া’, ‘দস্যু কেনারামের পালা’ এবং ‘রামায়ণ’ এ কবির অন্যতম সৃষ্টি।

তার সৃষ্টির চেয়েও বেশি নাটকীয় এবং একইসঙ্গে বিয়োগান্তক তার নিজের জীবন।

ষোড়শ শতকের প্রতিভাবান ও সংগ্রামী এই নারীকে নিয়েই চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেছেন এন রাশেদ চৌধুরী। ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে শুরু হয়েছিল ‘চন্দ্রাবতী কথা’র শুটিং। চন্দ্রাবতীর জন্মস্থান কিশোরগঞ্জের বিভিন্ন লোকেশনে ছবিটির শুটিং হয়েছে।

এরপর কেটে গেছে ছয় বছর। অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর ছবিটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে। সেন্সর ছাড়পত্র হাতে পেয়ে ছবিটি চলতি বছরই মুক্তি দেয়ার কথা ভাবছেন পরিচালক ও প্রযোজক রাশেদ চৌধুরী।

‘চন্দ্রাবতী কথা’র কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন দোয়েল ম্যাশ। এছাড়া অভিনয় করেছেন জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, মিতা রহমান, গাজী রাকায়েত, আরমান পারভেজ মুরাদ, নওশাবা আহমেদ, ইমতিয়াজ বর্ষণ, জয়িতা মহলানবিশ প্রমুখ।

ছবিতে কিশোরগঞ্জ গ্রামের সাধারণ মানুষও অভিনয় করেছেন।

এলএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]