লাইফ সাপোর্টে সংগীত পরিচালক ফরিদ আহমেদ

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০০ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০২১

শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটেছে করোনায় আক্রান্ত সংগীত পরিচালক ফরিদ আহমেদের। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে ১১ এপ্রিল রাত ১২টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে নেয়া হয় তাকে।

সেখানে গিয়েও উন্নতি হয়নি৷ আজ ভোর ৪টার দিকে ভেন্টিলেশন সাপোর্ট দেওয়া হয় ফরিদ আহমেদকে। যেটাকে লাইফ সাপোর্টও বলা হয়।

৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণের পর চিকিৎসকদের মতামত জানা যাবে বলে জানান ফরিদ আহমেদের সহকর্মী গীতিকবি ফরিদা ফারহানা।

তিনি আজ রোববার দুপুরে বলেন, ‘এত দ্রুত এতোটা অবনতি ঘটবে স্যারের, আমরা ধারণাও করতে পারিনি। ভোর ৪টার দিকে ভেন্টিলেশন সাপোর্ট দেওয়া হয়। অবস্থা খুবই গুরুতর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।’

ফরিদা ফারহানা আরও জানান, স্যারকে ভেন্টিলেশনে নেওয়ার পর থেকে ভাবি খুবই ভেঙে পড়েছেন। সবার কাছে দোয়া চাই স্যারের জন্য। একমাত্র সৃষ্টিকর্তাই পারেন স্যারকে বাঁচাতে।

এর আগে মার্চের শেষ সপ্তাহে সস্ত্রীক করোনা পজিটিভ ফল পান ফরিদ আহমেদ। অবস্থার অবনতি হলে ২৫ মার্চ রাতে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এই সংগীত পরিচালককে। এর মধ্যে স্ত্রী শিউলি আক্তারের অবস্থা ভালো হলেও ফরিদ আহমেদের তেমন কোনো উন্নতি হয়নি।

অনেক কালজয়ী গানের সুরকার ফরিদ আহমেদ। লিটন অধিকারী রিন্টুর লেখা ও কুমার বিশ্বজিতের গাওয়া ‘তুমি ছাড়া আমি যেন মরুভূমি’ গানে সুর করে প্রথম প্রশংসিত হন ফরিদ আহমেদ। এরপর থেকে অসংখ্য গান সৃষ্টি করেছেন তিনি। নাটক-সিনেমার আবহসংগীতকার হিসেবেও তার অবদান অনেক।

ফরিদ আহমেদের সুর করা আলোচিত গানের মধ্যে রয়েছে- ‘ইত্যাদি’ ম্যাগাজিনের টাইটেল সং ‘কেউ কেউ অবিরাম চুপি’, কুমার বিশ্বজিতের গাওয়া ‘তুমি ছাড়া আমি যেন মরুভূমি’, ‘মনেরই রাগ অনুরাগ’, রুনা লায়লার ‘ফেরারী সাইরেন’, রুনা লায়লা ও সাবিনা ইয়াসমীনের কণ্ঠে ‘দলছুট প্রজাপতি’, চ্যানেল আইয়ের ‘আজ জন্মদিন’, ‘ক্ষুদে গানরাজ’, ‘হৃদয়ে মাটি ও মানুষ’, সেরা কণ্ঠ প্রতিযোগিতার থিম সং, রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যার কণ্ঠে ‘তুমি আমার জীবনের গহীনে’ প্রভৃতি।

২০১৭ সালে সংগীত পরিচালক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন ফরিদ আহমেদ। ‘তুমি রবে নীরবে’ সিনেমায় সংগীত পরিচালনার জন্য এ পুরস্কার অর্জন করেন তিনি।

মিউজিক কম্পোজার্স সোসাইটি এবং রেশ ফাউন্ডেশন নামের আলাদা দুটি সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন ফরিদ আহমেদ।

এলএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]