মদ-ইয়াবা খাই না, মামলা সাজানো: আদালতে মৌ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:০৬ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০২১
ফাইল ছবি

মডেল মরিয়ম আক্তার মৌ তার বিরুদ্ধে করা মামলাকে সাজানো বলে দাবি করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘আমি মদও খাই না, ইয়াবাও খাই না। আমার বিরুদ্ধে করা মামলা সাজানো।’

শুক্রবার (৬ আগস্ট) দুপুরে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে রিমান্ড শুনানি চলাকালে আদালতে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে তাকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মোহাম্মদপুর থানার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করে সিআইডি।

অপরদিকে, তার আইনজীবী আব্দুল বাতেন তার রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ড শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) আবদুল্লাহ আবু বলেন, ‘আসামি নিজের বাসায় তরুণ-তরুণীদের নিয়ে মদের আসর জমাতেন। এই ঘটনার সঙ্গে আর কারা জড়িত আছে, তাদের খুঁজে বের করতে এবং মামলার সুষ্ঠু তদন্তের প্রয়োজনে আসামির রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ প্রয়োজন।’

আসামিপক্ষের আইনজীবী আব্দুল বাতেন রিমান্ড শুনানিতে বলেন, ‘আসামি মাদকের সঙ্গে জড়িত না। তিনি শুধুমাত্র একজন নৃত্যশিল্পী। তিনি কোনো মডেলও না। মিডিয়া তাকে মডেল বানিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘যে বাড়ি থেকে মাদক উদ্ধার করা হয়েছে, সেই বাড়িটি আসামির না। এটা তার শ্বশুরের বাড়ি। শ্বশুরের চার ছেলে ওই বাড়িতেই থাকেন। আসামি তার পরিবার-পরিজন নিয়ে ওই বাড়িতে বসবাস করেন। কীভাবে এখানে মদের আসর জমাবেন? তাই সার্বিক দিক বিবেচনায় তার রিমান্ড নামঞ্জুর করা হোক।’

এর আগে ২ আগস্ট শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলামের আদালত মডেল পিয়াসার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ১ আগস্ট রাত পৌনে ১২টার দিকে মডেল মরিয়ম আক্তার মৌয়ের রাজধানীর মোহাম্মদপুর বাবর রোডের বাসায় অভিযান চালায় গোয়েন্দা পুলিশ। তার বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ মদ উদ্ধার করা হয়। পরে রাত ১টার দিকে মৌকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়।

পুলিশ জানায়, মডেল পিয়াসা ও মৌ সংঘবদ্ধ একটি চক্রের সদস্য। তারা পার্টির নামে উচ্চবিত্তদের বাসায় ডেকে মদ ও ইয়াবা খাইয়ে আপত্তিকর ছবি তুলে রাখতেন। পরে সেই ছবি দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নিতেন।

জেএ/এএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]