এসেছে অভিনেতা শিমুল খানের কবিতার বই ‘সভ্যতার ময়নাতদন্ত’

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৯ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

শিমুল খান অভিনয়ের নিয়মিত মুখ। তিনি ঢাকাই বাংলা চলচ্চিত্রের একজন অভিনেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। চলচ্চিত্রে অভিনয় তার নেশা এবং পেশা। তিনি এখন পর্যন্ত দেশ-বিদেশের পঞ্চাশোর্ধ্ব চলচ্চিত্র এবং ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন।

সেই শিমুল খান আসছেন কবি পরিচয়ে। অবশ্য কবি শিমুল খানের জন্মটাই বরং অভিনেতা শিমুলের অনেক আগে। সেই দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়াকালীন সময় থেকেই একজন কবি হিসেবে তার কবিতা চর্চার শুরু। তখন থেকেই ছড়া, কবিতা এবং ছোটগল্প লিখতেন নিয়মিত। অভিনয়ে আসার আগেও নানা রকম সাহিত্য সাময়িকী, লিটল ম্যাগের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

সেই ধারাবাহিকতা থেকেই কিংবদন্তী পাবলিকেশন থেকে সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে শিমুল খানের লেখা প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘সভ্যতার ময়নাতদন্ত - Autopsy Of Civilization’।

বইটি প্রকাশ উপলক্ষে কিংবদন্তী পাবলিকেশনের স্বত্বাধিকারী প্রকাশক অঞ্জন হাসান পবন বলেন, ‘শিমুল খানের লেখা অনেক আগে থেকেই আমার ভাল লাগে। আমি তার লেখার গুণমুগ্ধ ভক্ত। গত বছর আমি তাকে আমার প্রতিষ্ঠান থেকে বই প্রকাশ করার প্রস্তাব দেই। তিনি যোগ্য সম্মানী এবং শর্তের বিনিময়ে হাসিমুখে বইটির পান্ডুলিপি আমাদেরকে প্রদান করেন।

বইটি প্রধানত বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য প্রকাশিত হলেও সারাবিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কবিতা পাগল সার্বজনীন পাঠকদের কথা মাথায় রেখে বাংলা এবং ইংরেজি উভয় ভাষাতেই বইটি সার্বজনীন সংস্করণ আকারে প্রকাশ করেছি।’

নিজের লেখা-প্রকাশিত প্রথম কাব্যগ্রন্থ সম্পর্কে শিমুল খান বলেন, ‘আমি লেখালেখি করি সেই শিশুকাল থেকে। কিন্তু সেটা শুধুমাত্র আমার নিজের আত্মার শান্তির জন্য। আমি পাঠকের উদ্দেশ্যে বই প্রকাশের জন্য কখনোই কিছু লিখিনি। তবে বইপুস্তকের প্রতি প্রকাশক অঞ্জন হাসান পবনের গভীর প্রেম-ভালবাসার পাশাপাশি আমার কবিতার প্রতি তার বিশেষ অনুরাগ দেখে আমি জীবনে প্রথমবারের মতো পাঠকদের উদ্দেশ্যে বই প্রকাশ করার মতো চূড়ান্ত দুঃসাহস দেখাতে পেরেছি।

আমার কবিতার বইটি হৈচৈ ফেলে দেয়ার মতো জনপ্রিয়তা পাবে না এটা আমি জানি। তবে এই বইটি কবিতার নিয়মিত পাঠকদের জন্য এক পশলা বৃষ্টির মতো হতে পারে। যা অনেকদিন পরিণত পাঠকের মগজের চন্দ্রিমায় স্থায়ীভাবে বসবাস করবে। এটুকু শক্ত আত্মবিশ্বাস নিজের লেখার প্রতি সবসময় আমার থাকবেই। তবে বিশেষভাবে সঞ্চিতা সৃষ্টিকে ধন্যবাদ এবং ভালবাসা জানাতে চাই আমার চাহিদা অনুযায়ী খুবই সুন্দর একটি প্রচ্ছদ অংকনের পাশাপাশি বইয়ে থাকা আমার প্রতিটি বাংলা কবিতাকে ইংরেজিতে অনুবাদ করার মতো কষ্টসাধ্য কাজটি সুনিপুণ দক্ষতায় সামলানোর জন্য।’

বর্তমানে বইটি রকমারি ডটকম থেকে অনলাইন অর্ডার করে কিনতে পাওয়া যাচ্ছে বলে জানান শিমুল। ৩৫০ টাকা মূল্যের বইটি ২৯% ছাড়ে ২৫০ টাকা মূল্যে কেনা যাবে এখান থেকে।

এদিকে প্রথম বই প্রকাশিত হতে না হতেই শিমুল খান দ্বিতীয় বই প্রকাশ করার প্রস্তাবও পেয়েছেন। সবকিছু চূড়ান্তও করে ফেলেছেন নতুন বইয়ের ব্যাপারে। তবে কবিতার বইয়ের পর এবার শিমুল খান লিখছেন উপন্যাস।

যেটি আগামী ২০২২ সালের একুশে বই মেলায় সপ্তর্ষি প্রকাশন থেকে প্রকাশিত হবে। অভিনয়ের পাশাপাশি লেখালেখিতেও নিয়মিত হওয়ার চেষ্টা করছেন শিমুল খান।

এলএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]