আরিয়ানকাণ্ড: ঘুস নেওয়ার অভিযোগ উড়িয়ে দিলেন সমীর

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৫৪ এএম, ২৫ অক্টোবর ২০২১

নিজের বিরুদ্ধে ওঠা ঘুস নেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন শাহরুখপুত্র আরিয়ানকে গ্রেফতার করা নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে। মুম্বাইয়ের পুলিশ কমিশনারকে চিঠি লিখে তিনি অনুরোধ করেন, নিশ্চিত করুন যেন কোনো অপ্রাসঙ্গিক আইনি পদক্ষেপের মাধ্যমে আমাকে ফাঁসানো না হয়।

ভারতের সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিন জানিয়েছে, মাদক মামলায় আরিয়ান খানের গ্রেফতারের পর রোববার (২৪ অক্টোবর) প্রভাকর শৈল নামের এক ব্যক্তির হলফনামাকে কেন্দ্র করে নতুন বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। হলফনামায় প্রভাকর জানান, তিনি কে পি গোসাভি (আরিয়ানের সঙ্গে তোলা যার সেলফি ভাইরাল হয়) ও জনৈক স্যাম ডি’স্যুজার কথোপকথন শুনেছিলেন। যেখানে আরিয়ানের মামলার নিষ্পত্তি করার জন্য নাকি সমীর ওয়াংখেড়ের পক্ষ থেকে ২৫ কোটি টাকা চাওয়া হয়েছিল। পরে ১৮ কোটি টাকায় দফারফা হয়। যার মধ্যে আট কোটি টাকা নাকি সমীর ওয়াংখেড়ের কাছে পৌঁছে দেওয়ার কথা হয়। প্রভাকরের দাবি, সেই টাকা স্যাম ডি’স্যুজার হাতেও দেওয়া হয়েছিল।

এরপরই আবার পরিচালক হনসল মেহতা টুইটারে ক্ষোভ প্রকাশ করে লেখেন, সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত না হওয়া পর্যন্ত তার পদত্যাগ করা উচিত। নিজেদের নির্দোষ প্রমাণ করার দায় কি শুধু হাজতে থাকা মানুষদেরই?

হনসল মেহতার পাশাপাশি নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোকে একহাত নেন শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। একটি ভিডিও শেয়ার করে তিনি অভিযোগ করেন, আরিয়ান মামলায় সাক্ষীকে দিয়ে সাদা কাগজে সই করানো হয়েছে। নিজের টুইটে প্রভাকরের ঘটনার উল্লেখও করেন তিনি।

এরপরই মুম্বাইয়ের পুলিশ কমিশনারকে চিঠি লেখেন এনসিবির জোনাল ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ে। চিঠিতে তিনি অভিযোগ করেন, তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে। সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিরাও এর নেপথ্যে রয়েছেন। এভাবে অপ্রাসঙ্গিক আইনি পদক্ষেপের মাধ্যমে যেন তাকে ফাঁসানো না হয়, সেই অনুরোধ জানান সমীর ওয়াংখেড়ে।

ইএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]