স্টেডিয়ামে পাকিস্তানি পতাকা ও সমর্থনের প্রতিবাদে অবসকিওরের গান

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৪১ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০২১

দেশমাতৃকার গানের জন্য ব্যান্ড অবসকিওর বরাবরই প্রশংসিত। একটানা দেশের গান উপহার দিয়েছে তারা। করোনা পরিস্থিতির গণ্ডি কাটিয়ে ফের তীব্র প্রতিবাদী গান নিয়ে এলো ব্যান্ডটি।

এবারের বিষয় সাম্প্রতিক ঘটনা। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান টি-২০ ম্যাচে দর্শক গ্যালারিতে দেখা গেছে চাঁদ-তারার পাকিস্তানি পতাকা! স্বাধীন বাংলার মাটিতে কারও মুখে বাংলা হরফে লেখা ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’!

এটাই বিষাদে বিদ্ধ করেছে ব্যান্ডের সদস্যদের। তার প্রতিবাদ জানাতেই তারা প্রকাশ করছে প্রতিবাদী গান ‘কণ্ঠ তোলো’। যা আসছে আজ ২৬ নভেম্বর।

এই প্রসঙ্গে অবসকিওর ব্যান্ডের সাইদ হাসান টিপু বললেন, ‘বাঙালির কাছে গর্ব ও আবেগের ব্যাপার লাল-সবুজ পতাকা। অথচ নিজের দেশের মাটিতে দাঁড়িয়ে ‘পিয়ারে পাকিস্তান’ নামে গলা ফাটাচ্ছেন, একাধিক টেলিভিশন ও ডিজিটাল মিডিয়ায় সাক্ষাৎকারে শুদ্ধ বাংলায় পাকিস্তানকে সমর্থন জানিয়েছেন অনেকে। সহ্য করা যায় না এসব।

আমরা এ বিষয়ে আমাদের বার্তা মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া জরুরি বলে মনে করেছি। করোনার কারণে আমাদের নিয়মিত অনুশীলনও বন্ধ। আমাদের ব্যান্ডের অন্যতম গীতিকার অমিত গোস্বামীকে বলতেই দ্রুত তিনি গান লিখে পাঠিয়ে দিলেন। এই গানে বিজয়ের মাসের আগেই জনমানুষের কাছে বার্তাটা আগে পৌঁছাক এটাই চেয়েছি।'

গানটির সুর-সংগীত করেছেন টিপু ও ব্যান্ড অবসকিওর। গানটি ব্যান্ডের ইউটিউব চ্যানেলে আজ (২৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় অবমুক্ত হবে।

টিপু আরও যোগ করে জানান, বাঙালির কয়েকটি প্রজন্মের ইতিহাস রক্তস্নাত। ২৩ বছরের পাকিস্তানী শাসনের অবসান হয় ৩০ লক্ষ শহীদ ও ৩ লক্ষ মা-বোনেদের ইজ্জতের বিনিময়ে। আজ বাংলাদেশের বুকে যেভাবে পাকিস্তানকে সমর্থন জানানো হয়েছে, তার বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছে সারা দেশের সাথে ব্যান্ড অবসকিওর।

এলএ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]