মা-মেয়ের আজ জন্মদিন

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১৩ পিএম, ১৮ জুন ২০২২

মঞ্চ ও নাটকে অভিনয়ের আঙ্গিনায় ১৮ জুন মজার একটি দিন। এই দিনে একইসঙ্গে বরেণ্য অভিনেত্রী ফেরদৌসী মজুমদার ও তার মেয়ে ত্রপা মজুমদারের জন্মদিন। জাগোনিউজ পরিবারের পক্ষ থেকে মা ও মেয়েকে শুভেচ্ছা।

দুই মা-মেয়ের একইদিনে জন্মদিন হওয়াটাকে জীবনের সেরা প্রাপ্তি বলে মানেন ফেরদৌসি ও ত্রপা মজুমদার। তারা দুজনেই চেষ্টা করেন এইদিনে একে অন্যকে খুশি রাখতে। আর প্রতিবছরই দিনটিকে ঘিরে অনেক পরিকল্পনা থাকে তাদের প্রিয়জনদের।

ফেরদৌসী মজুমদারের জন্ম বরিশালে হলেও তিনি বেড়ে উঠেছেন ঢাকাতে। তার বাবা খান বাহাদুর আব্দুল হালিম চৌধুরী ছিলেন ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট। তার ভাইবোন ছিল মোট ১৪ জন যাদের মধ্যে ৮ জন ভাই এবং ৬ জন বোন। সবচেয়ে বড় ভাই প্রয়াত শিক্ষাবিদ কবীর চৌধুরী এবং মেজ ভাই শহীদ মুনীর চৌধুরী। তাদের পৈত্রিক নিবাস ছিল নোয়াখালীতে। রক্ষণশীল পরিবার থেকে উঠে আসেন তিনি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন খ্যাতিমান অভিনেতা রামেন্দু মজুমদারের সঙ্গে পরিচয় ঘটে। তারপর প্রণয় সূত্রে তার গলাতেই বিয়ের মালা দেন ফেরদৌসি মজুমদার।

ফেরদৌসী বড় ভাই শহীদ বুদ্ধিজীবী মুনীর চৌধুরীর হাত ধরে মঞ্চে জীবনের প্রথম অভিনয় করেন রোবট চরিত্রে। মুনীর চৌধুরী রচিত ‘একতলা দোতলা’ নাটকের মধ্য দিয়ে টেলিভিশনে অভিনয় শুরু। তার মঞ্চের ‘কোকিলারা’ কিংবা টিভি নাটক ‘সংশপ্তক’র হুরমতি চরিত্রের দৃশ্যায়ন দর্শক হৃদয়ে আজো গাঁথা। প্রযোজক আতিকুল হক চৌধুরী প্রযোজিত ‘সারেং’ দিয়ে তার বেতার নাটকের যাত্রা শুরু।

অভিনয়ের নন্দিত ভুবনে ফেরদৌসী মজুমদার আজ জীবন্ত কিংবদন্তি। অভিনয়ের দ্যুতি তিনি ছড়িয়েছেন দেশ থেকে দেশান্তরে। তিনি নারী জাগরণেরও অনন্য উদাহরণ। অভিনয়ের জন্য এই কিংবদন্তি পেয়েছেন একুশে পদক ও মুনীর চৌধুরী সম্মাননা পদক।

ফেরদৌসি ও রামেন্দু মজুমদার দম্পতির একমাত্র সন্তান ত্রপা মজুমদার। জন্মেছেন মায়ের জন্মদিন ১৮ জুনেই। থিয়েটার জগতের তারকা অভিনয়শিল্পীদের অন্যতম একজন ত্রপা। ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় কাজ করলেও থিয়েটারই তার ভালো লাগার জায়গা। তাই সক্রিয়ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন থিয়েটারে। তার দলের নামও ‘থিয়েটার’। নাট্য চর্চায় অবদানের জন্য ত্রপা মজুমদার ঢাকা থিয়েটার প্রবর্তিত ফওজিয়া ইয়াসমিন শিবলী পদক লাভ করেছেন।

তিনি বিয়ে করেছেন অভিনেতা ও নির্মাতা আপন আহসানকে।

এমআই/এলএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]