জামশেদ শামীমের ‘ভাইরাল বউ’ পূর্ণতা!

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৩০ পিএম, ০২ জুলাই ২০২২

গ্রামের মধ্যবিত্ত পরিবারের সহজ সরল ছেলে শামীম। অসুস্থ মায়ের আগ্রহে বিয়ে করেন পূর্ণতা নামের সুন্দরী একটি মেয়েকে। কিন্তু পূর্ণতা স্বামী সংসারের চেয়েও বেশি আসক্ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। পূর্ণতা সেলিব্রেটি হতে চায়, ভাইরাল হতে চায়।

আর এই সুয়োগটা নেয় শামীমের বন্ধু তুর্কি। সেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসক্ত। কোনো একদিন পূর্ণতা ভাইরাল হওয়ার নেশায় তুর্কির হাত ধরে পালিয়ে যায়। তুর্কি তাকে পতিতালয়ে বিক্রি করে দেয়, পূর্ণতার জীবনে নেমে আসে ঘোর অন্ধকার। সে বুঝতে পারে সেলিব্রেটি হওয়ার নেশায় সে নিজেকে হারিয়ে ফেলেছে।

এদিকে শামীমের অসুস্থ মা যত্নের অভাবে মারা যায়। এভাবেই সামনে এগিয়ে যায় একক নাটক ‘ভাইরাল বউ’য়ের গল্প।

সম্প্রতি ‘RainDrop BD’র প্রযোজনায় সাভারের বর্ষা শুটিং হাউজ ও তার আশেপাশের মনোরম লোকেশনে নির্মিত হলো একক নাটক ‘ভাইরাল বউ’। নাটকটির গল্প ভাবনা ও নির্বহী প্রযোজক ছিলেন জহিরুল ইসলাম।

রচনা ও পরিচালনা করেছেন নাজমুল হাসান এবং ডিওপি ছিলেন জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়। আর এতে অভিনয় করেছেন জামশেদ শামীম, পূর্ণতা চৌধুরী, হেদায়েত উল্লাহ তুর্কি এবং আনোয়ারা জয়া।

পরিচালক নাজমুল হাসান বলেন, ‘এই নাটকটি আমার কাছে অন্য রকম একটা নাটক। এই নাটকটির গল্পে প্রেম আছে, বিরহ আছে, হাস্য-রস আছে, সামাজিক আবক্ষয়ের চিত্র আছে মোটকথা সুন্দর একটা বার্তা আছে দর্শকদের জন্য। তাছাড়া এখানে যারা অভিনয় করেছেন প্রত্যেকেই শতভাগ ন্যাচারাল অভিনয় করেছেন। দর্শকরা সুন্দর একটা নাটক উপভোগ করবেন এটা নিশ্চিতভাবে বলতে পারি।’

অভিনেতা জামশেদ শামীম বলেন, ‘ভাইরাল বউ নাটকের গল্পটি অনেক সুন্দর, পরিচালনা অনেক ভালো ছিল, আমার সহ শিল্পীরাও অনেক ভালো অভিনয় করেছেন। আমি কাজটি করে সন্তুষ্ট। আমার অডিয়েন্সরা নাটকটি দেখে তৃপ্তি পাবে এটুকু বলতে পারি।’

পূর্ণতা চৌধুরী বলেন, ‘চমৎকার একটি গল্পে কাজ করলাম। এখানে সমসাময়িক সামাজিক অবক্ষয়ের কথা তুলে ধরা হয়েছে। নাটকটি দেখলে দর্শকদের মধ্যে কোনোকিছুর প্রতি আসক্তি যে কতটা খারাপ হতে পারে সেটা বুঝতে পারবে।’

অভিনেতা হেদায়েত উল্লাহ তুর্কি বলেন, ‘বর্তমান সময়ে ভাইরাল বা সেলিব্রেটি হতে গিয়ে অনেকেই ভুল পথে পা বাড়ায় বা কোনোকিছুর প্রতি আসক্ত হয়ে পরে আর এই আসক্তি যে একটা জীবনের জন্য বা একটা পরিবারের জন্য কতটা ভয়াবহ হতে পারে সেটাই এই নাটকে দেখানোর চেষ্টা করা হয়েছে। আমার ভাষায় অসাধারন কাজ হয়েছে, দর্শকরা নাটকটি মন খুলে উপভোগ করতে পারবে।’

প্রযোজক সূত্রে জানা গেছে বর্তমানে ‘ভাইরাল বউ’ নাটকটি সম্পাদনার টেবিলে আছে। খুব শিগগিরই নাটকটি একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে সম্প্রচার করা হবে। তার পরের সপ্তাহের বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটায় ‘RainDrop BD’ ইউটিউব চ্যনেলে প্রচারিত হবে।

এলএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]