অভিনেত্রী মায়া ঘোষ মারা গেছেন

বিনোদন ডেস্ক
বিনোদন ডেস্ক বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:০৬ পিএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

কলকাতার বিশিষ্ট মঞ্চ অভিনেত্রী মায়া ঘোষ মারা গেছেন। শনিবার (৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭টা ৪৫ মিনিটে শ্রীরামপুরের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে তিনি পরলোক গমন করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

মায়া ঘোষ দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। শুক্রবার থেকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয় এবং শনিবার সন্ধ্যায় ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাকে তার মৃত্যু হয়। এ অভিনেত্রীর মৃত্যুতে কলকাতার নাট্যাঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

অভিনেত্রী মায়া ঘোষ উৎপল দত্ত প্রতিষ্ঠিত ‘পিপলস্ লিটল থিয়েটার’-এর সদস্য হিসেবে নাট্যজীবন শুরু করেছিলেন। ষাটের দশকে অজিতেশ বন্দ্যোপাধ্যায় প্রযোজিত ‘সাঁওতাল বিদ্রোহ’ নাটকের জনপ্রিয় মুখ হয়ে উঠেছিলেন মায়া।

অজিতেশ নান্দীকার গঠনের পর মায়াই দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হন। বাংলা থিয়েটারের নবনাট্য আন্দোলনের মশাল এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রেও তার বিশেষ অবদান ছিল।

জানা গেছে, বেশ কয়েক বছর ধরে বয়সজনিত বিভিন্ন সমস্যায় ভুগছিলেন এ অভিনেত্রী। আজ (৪ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় অ্যাকাডেমি চত্বরে তার মরদেহ নিয়ে আসা হয়। সেখানেই তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়।

উল্লেখ্য, নান্দীকারের প্রযোজনায় মায়ার প্রথম অভিনীত নাটক পিরানদেল্লোর নাটক অবলম্বনে ‘নাট্যকারের সন্ধানে ছটি চরিত্র’। এর পরিচালক ছিলেন রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্ত। এরপর মনোজ মিত্রের ‘চাক ভাঙা মধু’ এবং মোহিত চট্টোপাধ্যায়ের ‘রাজরক্ত’তেও নজর কাড়েন মায়া। পুরুষ অভিনেতাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সেটের জিনিসপত্র বহন করেছেন। ষাটের দশকে মঞ্চে ছড়িয়ে দিয়েছেন মায়া।

১৯৮৭ সালে ‘বেলা অবেলার গল্প’ নাটকে অভিনয়ের জন্য তিনি পশ্চিমবঙ্গ নাট্য অ্যাকাডেমি পুরস্কার লাভ করেছেন। ‘মঞ্চে জীবন’-নামে রুশতি সেনের সম্পাদনায় তিনি একটি বই লিখেছিলেন, বলা চলে সেটিই মায়ার জীবনের একমাত্র দলিল৷

এমএমএফ/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।