অসহায় মানুষের পাশে আছেন তারা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি শরীয়তপুর
প্রকাশিত: ০২:৩৫ পিএম, ২৮ অক্টোবর ২০১৯

চাকরি ও ব্যবসার ফাকে তারা ছুটে যান অসহায় মানুষের কাছে। কারো রক্ত প্রয়োজন, তারা জোগাড় করে দেন। শীতের কাঁপুনি যখন বাড়ে, তখন তারা ব্যস্ত হয়ে পড়েন শীতবস্ত্র বিতরণে। বন্ধুর বিপদে সাহায্যের জন্য ছুটে যান। এসব কাজের জন্য টাকা সংগ্রহ করতে খুলেছেন ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার গ্রুপ।

ssc-in-

এ দলের ঠিকানা ‘এসএসসি বন্ধন ২০০১ বাংলাদেশ’। তাদের স্লোগান ‘বন্ধন দৃঢ় হোক বন্ধুত্বে’। দলটি এসএসসি ২০০১ সালের ব্যাচ হলেও কার্যক্রমের কারণে ফেসবুক ভিত্তিক সংগঠনটি এখন বাংলাদেশের অনেকের কাছেই পরিচিত।

ssc-in-

সংগঠক মোহাম্মদ মনির হোসেন জানান, সংগঠনে অ্যাডমিন একজন আর মডারেটর ৭ জন। সারাদেশে সদস্য সংখ্যা ৭ হাজার ২৯৬ জন। ২০১৮ সালে সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠার পরে তারা সমাজের অসহায় ও দরিদ্র মানুষের জন্য নানামুখী উদ্যোগ নেন। পথশিশু ও এতিমদের পাশে দাঁড়ান। রমজান মাসে দুস্থদের মধ্যে ইফতার সামগ্রী ও ঈদবস্ত্র বিতরণ, শীতবস্ত্র বিতরণ, স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি, অনুদান সংগ্রহে সাংস্কৃতিক পরিবেশনা, এতিম শিশুদের নিয়ে নানা ধরনের কর্মসূচি পালন করেন। সমাজসেবামূলক কাজের অংশ হিসেবে অসহায় ও দুস্থ ব্যক্তিদের কর্মসংস্থানের জন্যও তারা সহায়তা করেন।

ssc-in-

গত ২৬ অক্টোবর শনিবার বিকেলে শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলার ধানকাঠি ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের চরমালগাঁও গ্রামের নিহত আব্দুল গনি খানের ছেলে খোকন খানের (৩৫) অসহায় হতদরিদ্র পরিবারের পাশে দাঁড়ান তারা। কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে নিহত পরিবারের বাড়িতে গিয়ে গাভি কিনতে নগদ অর্থ ও সেলাই মেশিন দেওয়া হয়। এসময় গোসাইরহাট সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোহাইমিনুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট মো. জাকির হুসাইন, মো. সোহাগ সরদার, সোলায়মান সরদার ফাহিন, দেওয়ান সোহাগ, মামুন, বজলু, ইমরান সুমন, মিতালী সিকদার, মোহাম্মদ মনির হোসেন এবং সিঙ্গার রানা উপস্থিত ছিলেন।

ssc-in-

শুধু তা-ই নয়, গত রমজান মাসে চট্টগ্রামে ৫০ জন পথশিশুর মাঝে খাবার ও বস্ত্র বিতরণ করে সংগঠনটি। ২৮ রমজান শরীয়তপুর জেলার সখিপুর মোহাম্মদিয়া এতিমখানায় ১৫০ জন শিশুর মাঝে বস্ত্র (পাঞ্জাবি-পায়জামা) বিতরণ করে। এছাড়া গত ১৫ মে মগবাজার এলাকার মিনার জাবেদের স্ত্রী মিসেস মিনারা টিউমারজনিত রোগে ভুগছিলেন। অর্থের অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছিলেন না। তখন চিকিৎসার জন্য অর্থ দিয়ে সহায়তা করে সংগঠনের বন্ধুরা।

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি অ্যাডভোকেট মাসুদুর রহমান মাসুদ বলেন, ‘বন্ধুদের গ্রুপটি সমাজসেবামূলক নানামুখী কাজের জন্য শরীয়তপুর জেলাসহ সারাদেশে পরিচিতি পেয়েছে। সমাজের অসহায় মানুষের জন্য এ উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়।’

মো. ছগির হোসেন/এসইউ/জেআইএম