রোহিঙ্গা শিশুদের ডিপথেরিয়া প্রতিরোধে ১২ কোটি টাকা বরাদ্দ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১২:৫৭ পিএম, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০১:০১ পিএম, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭
রোহিঙ্গা শিশুদের ডিপথেরিয়া প্রতিরোধে ১২ কোটি টাকা বরাদ্দ

কক্সবাজারে আশ্রিত রোহিঙ্গা শিশুদের ডিপথেরিয়া রোগ প্রতিরোধে আরও ১২ কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা বরাদ্দ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। শরণার্থী শিবিরে দ্রুত ছড়িয়ে পড়া এ রোগ প্রতিরোধে অতিরিক্ত জনবল ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রী সরবরাহ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এ পর্যন্ত ডিপথেরিয়া রোগে দেড় সহস্রাধিক শিশু-আক্রান্ত ও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার আঞ্চলিক অফিস এর আঞ্চলিক জরুরি পরিচালক ড. রোডিরিকো অফরিন বলেন, অনিয়মিত টিকা গ্রহণের ফলে রোহিঙ্গা শরণার্থীরা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠী। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জরুরি সেবা ও চিকিৎসা প্রদানে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দে তৎপর রয়েছে। তিনি বলেন, বরাদ্দকৃত ১২ কোটি টাকায় পরবর্তী ছয় মাস প্রয়োজনীয় টিকাদান কর্মসূচি, প্রয়োজনীয় ল্যাবরেটরি স্থাপন, ওষুধ ক্রয় ও স্থানীয় জনগণকে সম্পৃক্ত করে কার্যক্রম পরিচালিত করা হবে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক সপ্তাহে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ডিপেথেরিয়া চিকিৎসা কেন্দ্র ও বেড স্থাপন, শিশু ও স্বাস্থ্য কর্মীদের ডিপথেরিয়া প্রতিরোধে জীবন রক্ষাকারী ১ হাজার ৩৪৫ ভায়াল এন্টি টক্সিন ও ৩ লাখ ডোজ অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ সরবরাহ করেছে।

এমইউ/ওআর/আইআই