বিএসএমএমইউতে গর্ভের শিশুদের হৃদরোগ জটিলতা শীর্ষক সেমিনার

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৫:২৯ পিএম, ১৮ জুন ২০১৯
ফাইল ছবি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) মঙ্গলবার গর্ভবতী মায়েদের এবং গর্ভে থাকা শিশুদের হৃদযন্ত্রের রোগ ও সমস্যা-সংক্রান্ত জটিলতা এবং এর চিকিৎসার বিষয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ সেমিনার (সিএমই) অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিএসএমএমইউ’র ফিটো ম্যাটারনাল মেডিসিন বিভাগের উদ্যোগে ‘ম্যাটারনাল অ্যান্ড ফিটাল কার্ডিয়াক ডিসঅর্ডারস ইন প্রেগন্যান্সি’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ডা. মিলন হলে অনুষ্ঠিত সিএমই প্রোগ্রামে সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক ডা. টি এ চৌধুরী। কো-চেয়ারপারসনের দায়িত্ব পালন করেন ফিটো ম্যাটারনাল মেডিসিন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. ফিরোজা বেগম।

প্যানেলিস্ট হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নবজাতক বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা, কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. সজল কৃষ্ণ ব্যানার্জি, শিশু কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. জাহিদ হোসেন।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ডা. নাহরীন আখতার। বৈজ্ঞানিক অধিবেশনে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডা. সানজিদা মাহমুদ, ডা. উম্মে সালমা, ডা. তাহমিনা করিম। মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন সহযোগী অধ্যাপক ডা. তাবাসসুম পারভীন। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন সহযোগী অধ্যাক ডা. সৈয়দা সাঈদা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, নতুন নতুন আবিষ্কার চিকিৎসা বিজ্ঞানকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে গেছে। সঠিক ও উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য যথা সময়ে প্রয়োজনীয় ডায়াগোনসিস (পরীক্ষা-নিরীক্ষাসমূহ) করা অপরিহার্য। গভবর্তী মা ও গর্ভে থাকা শিশুদের হৃদযন্ত্রের সমস্যা চিহ্নিত করতে অবশ্যই প্রয়োজনীয় ডায়াগোনসিসের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।

সিএমই প্রোগামটি গর্ভবতী মায়েদের এবং গর্ভে থাকা শিশুদের হৃদযন্ত্রের সমস্যা, জটিলতা ও রোগসমূহ থেকে জীবনরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলেও জানান তিনি।

এমইউ/এমএআর/এমএস