তিনদিন কমে আবার বাড়ল ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৫:৩৫ পিএম, ১০ আগস্ট ২০১৯

রাজধানীসহ সারাদেশের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা আবার বেড়েছে। গত তিনদিন ৭, ৮ ও ৯ আগস্ট যথাক্রমে ২৪২৮, ২৩২৬ ও ২০০২ জন আক্রান্তের সংখ্যা থাকলেও গত ২৪ ঘণ্টায় শনিবার (১০ আগস্ট) আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২১৭৬ জনে দাঁড়িয়েছে।

আক্রান্তদের মধ্যে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ১০৬৫ জন ও ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ১১১১ জন ভর্তি হয়েছেন। স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুম সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ১ জানুয়ারি থেকে ১০ আগস্ট পর্যন্ত সারাদেশের হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তির সংখ্যা ৩৮ হাজার ৮৪৪ জন। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছে ২৯ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ২৯ হাজার ৩৯৫ জন। বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৯ হাজার ৪২০ জন।

রাজধানীর সরকারি-বেসরকারি ৪০টি হাসপাতালে পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ৭ আগস্ট ভর্তিকৃত ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ছিল ১ হাজার ২৭৫। ৮ আগস্ট তা কমে দাঁড়ায় ১ হাজার ১৫৯ জন ও ৯ আগস্ট তা আরও কমে ৯৪৭ জনে দাঁড়ায়। তবে আজ (শনিবার) আবার তা বেড়ে ১০৬৫ জনে দাঁড়িয়েছে।

একই সময়ে ঢাকার বাইরে ৭ আগস্ট রোগীর সংখ্যা ছিল ১ হাজার ১৫৩ জন। ৮ আগস্ট রোগীর সংখ্যা ১৪ জন কমে দাঁড়ায় ১ হাজার ১৬৭ জনে। ৯ আগস্ট রোগীর সংখ্যা আরও কমে দাঁড়ায় ১ হাজার ৫৫ জনে এবং আজ শনিবার (১০ আগস্ট) তা বৃদ্ধি পেয়ে ১ হাজার ১১১ জনে দাঁড়িয়েছে।

রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালের মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৫৩ জন, মিটফোর্ডে ৬৩ জন, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ২৪ জন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ৭৮ জন, বিএসএমএমইউতে ৩০ জন, পুলিশ হাসপাতাল রাজারবাগে ১৪ জন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১১৩ জন, বিজিবি হাসপাতাল পিলখানা ঢাকায় ২ জন, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ৩৪ জন এবং কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ৭২ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন।

বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ঢাকা শহর ছাড়া ঢাকা বিভাগে ২৭৭ জন, চট্টগ্রামে ২২৬ জন, খুলনায় ১২৬ জন, রংপুরে ৭১ জন, রাজশাহী ১১৪ জন, বরিশালে ১৭৮ জন, সিলেটে ৩২ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৮৭ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন।

এমইউ/আরএস/এমএস