হাসিমুখে চিকিৎসা সেবা দেয়ার আহ্বান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:২৫ পিএম, ০৬ নভেম্বর ২০১৯

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ইসলাম ধর্মে আছে, সেবাই শ্রেষ্ঠ ইবাদত। রোগীদেরকে ভালোবেসে, হাসিমুখে সেবার মনোবৃত্তি নিয়ে চিকিৎসা সেবা দিতে হবে।

বুধবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) শহীদ ডা. মিলন হলে আয়োজিত নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত মেডিকেল অফিসারদের হাতে নিয়োগপত্র প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। প্রধান অতিথি হিসেবে নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত ২০০ জন চিকিৎসকের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে নিয়োগপত্র তুলে দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এতে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নত শিক্ষা, আধুনিক চিকিৎসাসেবা প্রদান ও গবেষণা করা হয়। এই কর্মকাণ্ডকে আরও জোরদার করার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে ছড়িয়ে দিতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এশিয়ার অন্যতম শ্রেষ্ঠ মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে স্বীকৃত। মেধা ও মননকে কাজে লাগিয়ে দায়িত্বশীলতার সাথে রোগীদের সেবা প্রদানের মাধ্যমে এই বিশ্ববিদ্যালয়কে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বিস্তৃত করার অভিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে হবে।

ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া চূড়ান্ত নিয়োগ কার্যক্রম সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগ্রহ, নির্দেশনা, ইস্পাত কঠিন মনোবল ও যথাযথ সিদ্ধান্ত প্রদানের ফলে অত্যন্ত স্বচ্ছতার সাথে এই নিয়োগে আবেদনকারীদের মধ্য থেকে সবচাইতে মেধাবী ও যোগ্য চিকিৎসকদেরই নিয়োগ দেয়া সম্ভব হয়েছে।

উপাচার্য তার বক্তব্যে নবনিযুক্ত অফিসারদের উদ্দেশ্যে বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে প্রতিষ্ঠিত দেশের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয়কে চিকিৎসা শিক্ষা, চিকিৎসা সেবা ও গবেষণায় আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করতে সততা, নিষ্ঠা, নিয়মানুবর্তিতা, আন্তরিকতার সাথে রোগীদের সেবা দিতে হবে। সেই সঙ্গে স্বনামধন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক হিসেবে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসা নিতে আসা কোনো রোগী যেন মন খারাপ করে বাড়ি ফিরে না যায়। যথাযথ চিকিৎসা পেয়ে রোগীরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেলে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে।

নিয়োগপত্র প্রদান অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বিএসএমএমইউ উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ আতিকুর রহমান।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এ বিএম আব্দুল হান্নান, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোজাফফর আহমেদ, পরিচালক হাসপাতাল ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে মাহবুবুল আলম প্রমুখসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের সদস্যবৃন্দ, বিভাগীয় চেয়ারম্যানবৃন্দ, অফিস প্রধানগণ, শিক্ষক, চিকিৎসক, কর্মকর্তা, নার্স, কর্মচারীবৃন্দ।

উল্লেখ্য, ডেন্টাল সার্জনসহ ২০০ মেডিকেল অফিসার নিয়োগের লক্ষ্যে ২০১৭ সালের ২ অক্টোবর প্রথম বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। মোট ৮৭৯১ জন চিকিৎসক আবেদন করেন। কিন্তু ত্রুটির কারণে ২৩৪টি আবেদন বাতিল হওয়ায় বৈধ আবেদন হয় ৮৫৫৭টি। এর মধ্যে মেডিকেল অফিসার ৭২৪৪টি এবং ডেন্টাল সার্জারি ১৩১৩টি। চলতি বছরের গত ২২ মার্চ ২০০ জন মেডিকেল অফিসার নিয়োগ পরীক্ষা সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন হয়।

গত ১২ মে লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়। এতে মোট মেডিকেল অফিসার ৭৩৯ জন এবং মেডিকেল অফিসার (ডেন্টাল সার্জারি) ৮১ জনসহ মোট ৮২০ জন উত্তীর্ণ হয়। চলতি বছরের জুন ও জুলাইয়ে মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ সম্পন্ন হয়। ২ নভেম্বর মৌখিক পরীক্ষার ফলাফল সিন্ডিকেটে অনুমোদিত হয় এবং ৩ নভেম্বর সেই ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

এমইউ/এমএসএইচ/এমএস