যথাযোগ্য মর্যাদায় শোক দিবস পালন করবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:৫০ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২০

আগামী ১৫ আগস্ট স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের অধীন বিভিন্ন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানকে দিবসটি বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে পালনের নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে।

১০ আগস্ট স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সিদ্ধান্তগুলো হলো-

১. ১৫ আগস্ট স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের আওতাধীন সকল প্রতিষ্ঠান (কমিউনিটি ক্লিনিক পর্যন্ত বিস্তৃত হবে) ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে।

২. দেশের সকল সরকারি হাসপাতালে (জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন ও কমিউনিটি ক্লিনিক পর্যন্ত) ব্যানার প্রস্তুত করে দৃশ্যমান স্থানে প্রদর্শনের ব্যবস্থা করতে হবে একই সঙ্গে সকল বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবা ও মেডিকেল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ব্যানার প্রস্তুত করে দৃশ্যমান স্থানে প্রদর্শনের ব্যবস্থা করতে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে অন্যান্য কর্মসূচি পালন করবে।

৩. স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের আওতাধীন সকল দফতর সংস্থায় (জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে) স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, ডিসি, এসপিসহ সকল সরকারি দফতর প্রধানসহ অন্যদের আমন্ত্রণ জানিয়ে আলোচনা সভা, কোরআন তেলাওয়াত ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করতে হবে।

৪.সারাদেশে সরকারি হাসপাতালের রোগীদের জন্য উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করতে হবে।

৫.স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের পক্ষ থেকে শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থান বিভিন্ন দফতর সংস্থার সম্মুখে জনগণের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বঙ্গবন্ধুর ছবি সম্বলিত বিলবোর্ড, প্ল্যাকার্ডের মাধ্যমে প্রদর্শনের ব্যবস্থা করতে হবে। স্বাস্থ্য সম্পর্কিত প্রচারণার ব্যবস্থা করতে হবে।

৬.পরীক্ষাসহ সেবা প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। কোনো প্রকার চিকিৎসা ফি নেওয়া যাবে না।

এমইউ/এনএফ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]