লিউকেমিয়া নিয়ে আতংকিত না হওয়ার পরামর্শ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:১১ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও সমাবেশসহ নানা আয়োজনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) হেমাটোলজি বিভাগের উদ্যোগে দীর্ঘমেয়াদি রক্তের ক্যান্সার সচেতনতায় আন্তর্জাতিক ক্রনিক মায়েলয়েড লিউকেমিয়া (সিএমএল) দিবস পালিত হয়েছে।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দিবসটি উপলক্ষে সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি-ব্লকের সামনে কবুতর ও বেলুন উড়িয়ে শোভাযাত্রা ও দিবসের উদ্বোধন করেন বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ। এর আগে ডি-ব্লকের ১৫ তলায় একটি আধুনিক হেমাটোলজি ওয়ার্ডের উদ্বোধন করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, সিএমএল হলো এক ধরনের দীর্ঘমেয়াদি রক্তের ক্যান্সার। এই রোগ নিয়ে আতংকিত না হয়ে এর চিকিৎসা সম্পর্কে জানা প্রয়োজন। সুচিকিৎসার মাধ্যমে এই রোগ থেকে সুস্থ জীবনযাপন সম্ভব বলে জানান তিনি।

jagonews24

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে যে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে স্বাস্থ্যখাত তার মধ্যে অন্যতম। প্রধানমন্ত্রীর সহায়তায় বিএসএমএমইউ’র সার্বিক উন্নয়ন কার্যক্রম দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। জাতির পিতার নামে প্রতিষ্ঠিত এই বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বল্প সময়ে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কোভিড ফিল্ড হাসপাতাল চালু করা হয়েছে। রোগীদের চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করতে ২০ হাজার লিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন অক্সিজেন ট্যাংক স্থাপন করা হয়েছে।

উপাচার্য বলেন, ক্যান্সারসহ বিভিন্ন জটিল রোগের ওষুধ বর্তমানে দেশেই উৎপাদন হচ্ছে। বিশ্বের ১৫১টি দেশে বাংলাদেশের ওষুধ রপ্তানি হচ্ছে, যা স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে একটি বিরাট অর্জন।

BSMMU-3.jpg

বিএসএমএমইউ উপাচার্য তার বক্তব্যে জাতিসংঘের সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট সল্যুশনস নেটওয়ার্ক (এসডিএসএন) দারিদ্র্য দূরীকরণ, সবার জন্য শান্তি ও সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে সার্বজনীন আহ্বানে সাড়া দিয়ে সঠিক পথে অগ্রসর হওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘এসডিজি অগ্রগতি পুরস্কার’ অর্জনের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে তার নেতৃত্বে দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।

হেমাটোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. সালাহউদ্দিন শাহের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপাচার্য ছাড়াও উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. এ কে এম মোশাররফ হোসেন, মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মাসুদা বেগম প্রমুখ বক্তব্য দেন।

এমইউ/এআরএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]