‘স্বাস্থ্যখাতের সফল পরিকল্পনা-পরিশ্রমে করোনায় মৃত্যুশূন্য দেশ’

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:০২ পিএম, ২১ নভেম্বর ২০২১

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ক্যান্সার, কিডনি, হার্ট, ডায়াবেটিসের মতো অসংক্রামক রোগের (এনসিডিসি) কারণেই বর্তমানে দেশের মানুষের আউট অব পকেট এক্সপেনডিচার বেশি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই রোগগুলোতে প্রতি বছর দেশে সর্বাধিক মৃত্যুসহ অনেক পরিবার প্রায় নিঃস্ব হয়ে যায়। এ ব্যাপারটির গুরুত্ব অনুধাবন করেই দেশের আট বিভাগে আটটি উন্নতমানের ১৫ তলাবিশিষ্ট ক্যান্সার, কিডনি, লিভার চিকিৎসার হাসপাতাল নির্মাণ করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, হাসপাতাল নির্মাণকাজ একেবারেই শেষ পর্যায়ে। এসব হাসপাতালে হাজারো রোগী বিনা খরচে এরকম নন-কমিউনিকেবল ডিজিজগুলোর চিকিৎসা পাবে। এতে দেশের মানুষের আউট অব পকেট এক্সপেনডিচার অনেকাংশেই কমে যাবে।

jagonews24

আজ রোববার (২১ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টালে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিট আয়োজিত ‘ডিসেমিনেশন অন পাথ ওয়েজ টু রিডিউস হাউসহোল্ড আউট অব পকেট এক্সপেন্ডিচার’ শীর্ষক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ সময় দেশে করোনায় গত প্রায় ৬০০ দিনের মধ্যে ১ম মৃত্যুশূন্য হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দেশবাসীকে অভিবাদন জানান এবং এটিকে দেশের জন্য একটি বড় সফলতা বলে উল্লেখ করেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, রাশিয়াসহ বিশ্বের বহু দেশেই মৃত্যুহার এখনো ঊর্ধ্বমুখী। অনেক দেশ লকডাউনে যাচ্ছে। সে সময় বাংলাদেশ করোনায় মৃত্যুশূন্য হলো। এটি স্বাস্থ্যখাতের সফল পরিকল্পনা, পরিশ্রম এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগের ফসল। তবে আমাদের কোনোভাবেই আত্মতুষ্টিতে ভোগা যাবে না। কারণ এটি যাতে আবারো বড় কোনো আঘাত হানতে না পারে সেজন্য কাজ করতে হবে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া। সভায় মূল প্রবন্ধ তুলে ধরেন স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিটের মহাপরিচালক ডা. মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন।

এমইউ/এমএইচআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]