বাংলাদেশের চিকিৎসাব্যবস্থা উন্নত নয়: সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:১১ পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০২২

বাংলাদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নত নয় মন্তব্য করে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু বলেছেন, আমরা একটা জিনিস লক্ষ্য করি আমাদের দেশের হাজার হাজার রোগী চিকিৎসার জন্য ভারতে পাড়ি জমায়। এর একটাই কারণ আমাদের চিকিৎসাসেবা ওদের থেকে উত্তম নয়।

হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকদের সংগঠন হোমিও পেশাজীবী সমিতির (হোপেস) ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার (২৬ নভেম্বর) সংগঠনটির আয়োজিত জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সম্মেলন-২০২২ এ প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী।

সংগঠনটির উপদেষ্টা পরিষদের চেয়ারম্যান ছবি বিশ্বাসের সভাপতিত্বে ও ডা. মো. ইউসুফ আলী অনিম এবং ডা. মোহাম্মদ লোকমানের সঞ্চালনায় সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ডের রেজিস্ট্রার ডা. মো. জাহাঙ্গীর আলম।

দেশের চিকিৎসকদের সমালোচনা করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের সমস্যা হচ্ছে আমরা একজন রোগীর সঙ্গে সময় দিতে চাই না। কত তাড়াতাড়ি এ রোগীকে বিদায় করে আরেকজন রোগী দেখবো এ মানসিকতাই সবচেয়ে বড়। অনেক দেশে দেখেছি চিকিৎসকরা রোগীকে অনেক সময় দেন। একজন চিকিৎসক যদি রোগীর সঙ্গে কথা বলেন তাহলে রোগী মানসিকভাবে অনেক শক্তিশালী হয়। এতে রোগী খুব তাড়াতাড়ি ভালো হয়ে যায়।

বাংলাদেশের উন্নতিকে কিছু রাজনৈতিক দল বিকৃতভাবে প্রকাশ করছে উল্লেখ করে খসরু বলেন, আমরা উন্নতির দিকে এগিয়ে চলেছি। কিন্তু আজ রাশিয়া ও ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে যে বিশ্বমন্দা দেখা দিয়েছে সেটার ছোঁয়া আমাদেরও লেগেছে। কিছু রাজনৈতিক দল আছে এটাকে বিকৃতভাবে প্রকাশ করছে। তারা বলছেন, আমাদের দেশ দেউলিয়া হয়ে গেছে। কিন্তু আইএমএফ, বিশ্বব্যাংক বলছে— বাংলাদেশ অর্থনৈতিক কাঠামো দেউলিয়া হওয়ার মতো নয়।

হোপেসের দিনব্যাপী সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ডের চেয়ারম্যান ডা. দিলীপ কুমার বড়ুয়া, ঢাবির সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. অসীম কুমার সরকার, ম্যাক্সফেয়ার অ্যান্ড কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এস এ এম রেজা-উর রহিম প্রমুখ।

এএএম/এমএএইচ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।