ভুয়া ছবিতে পশ্চিমবঙ্গে দাঙ্গা, গ্রেফতার ১


প্রকাশিত: ১২:২৬ পিএম, ০৯ জুলাই ২০১৭

ভোজপুরি সিনেমার ছবি পোস্ট করে পশ্চিমবঙ্গের বাদুড়িয়াকাণ্ডে ফের উত্তেজনা সৃষ্টির অভিযোগে দক্ষিণ ২৪ পরগনার এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বাদুড়িয়াকাণ্ডের ওই ঘটনায় ইতোমধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার বসিরহাট থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে বাদুড়িয়ায় প্রথম সহিংসতা শুরু হয়। সেখানে ১৭ বছর বয়সী এক কিশোর নবী হযরত মোহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে ফেইসবুকে একটি পোস্ট দেয়ার পর স্থানীয় মুসলিমরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। পরে বাদুড়িয়ায় শুরু হওয়া সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা যা উত্তর চব্বিশ পরগনার অন্যান্য এলাকায়ও ছড়িয়ে পড়ে।

পুলিশ ওই কিশোরকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায়। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বাদুরিয়া শহরটির পরিস্থিতি তুলনামূলকভাবে শান্ত হয়ে আসে।

কিন্তু পুলিশ শুধু হিন্দুদেরই গ্রেফতার করছে অভিযোগ করে শুক্রবার উত্তেজিত একদল লোক বিক্ষোভ শুরু করলে পুলিশ লাঠিপেটা করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে পরিস্থিতি ফের উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। তবে শনিবার কোনো সহিংসতার ঘটনা ঘটেনি বলে দাবি করে পুলিশ।

বাদুড়িয়ায় যখন উত্তেজনা ক্রমশ বাড়ছে সে সময় একটি ভোজপুরি সিনেমার স্টিল সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দাবি করা হয় যে, ছবিটি বাদুড়িয়ায় সহিংস ঘটনার। একই সময় ছবিটি পোস্ট করেন হরিয়ানার বিজেপি নেত্রী বিজেতা মালিক।

সেখানে তিনি মন্তব্য করেন, পশ্চিমবঙ্গে হিন্দুদের অবস্থা বেশ উদ্বেগজনক।

সংবাদ মাধ্যমের খবর, ওই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোডের অভিযোগে ভবতোষ চট্টোপাধ্যায় নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুরের রূপনগরে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ভোজপুরি সিনেমার অত্যাচারের ছবিটি পোস্ট করা হয় সেটি আসলে মনোজ তিওয়ারির ছবি ‘অঔরত খিলোনা নেহি’। ছবিতে দেখা যাচ্ছে এক ব্যক্তি এক মহিলার সম্ভ্রমহানি করছে।

গত ৫ জুলাই ওই ছবিটি ফেসবুকে আপলোড করে দেন ভবতোষ। গ্রেফতারের পাশাপাশি ভবতোষের কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন ও একটি ল্যাপটপ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তিকর ছবি ছড়িয়ে উত্তেজনা সৃষ্টির কড়া সমালোচনা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, কুমিল্লার ছবি দেখিয়ে বলা হচ্ছে বসিরহাটের ছবি। যারা এগুলো করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বসিরহাটের ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্ত করা হবে। যারা ভুয়া ছবি ও ভিডিও ছড়িয়েছে, তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে। আইন আইনের পথে চলবে।’

এমএআর/জেআইএম