ম্যাগি নুডলস প্রস্তুতকারক সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা


প্রকাশিত: ১২:২২ পিএম, ৩০ মে ২০১৫

ভারতে থামছে না ম্যাগি বিতর্ক। ম্যাগি নুডলস প্রস্তুতকারক সংস্থা নেসলে-সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে দেশটির উত্তরপ্রদেশের বরাবাঁকি এসিজেএম আদালতে শনিবার একটি মামলা দায়ের করেছে ভারতের খাদ্য সুরক্ষা বিভাগ। ভারতের খাদ্য সুরক্ষা বিধির ৫৯-এর ১ নম্বর ধারা অনুযায়ী মামলাটি দায়ের করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

দেশটির উত্তরপ্রদেশের ফুড সেফটি অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফএসডিএ) বিভাগের অনুমতি পাওয়ার  পরই এই মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বরাবাঁকি খাদ্য সুরক্ষা দফতরের প্রধান সঞ্জয় সিংহ।

যদিও এ মামলার বিষয়ে ম্যাগি নুডলস কর্তৃপক্ষের কোন প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি। তবে বিষয়টি ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারও গুরুত্ব সহকারে দেখছে। দেশটির কেন্দ্রীয় ক্রেতাসুরক্ষা মন্ত্রণালয় ভারতের ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ডস অথরিটিকেও ম্যাগির মানের বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছে।

দু’মিনিটের চটজলদি তৈরি খাবার ম্যাগি বাচ্চাদের খুব পছন্দের হলেও তা কতদূর স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে নিরাপদ, সে ব্যাপারে সংশয় দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে ম্যাগি নুডলসের নমুনায় অনুমোদিত মাত্রার চেয়ে বেশি সিসা ও মনোসোডিয়াম গ্লুটামেটের উপস্থিতি প্রমাণিত হয়েছে, যা ঘিরে ভারতজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

বরাবাঁকির ইসি ডে স্টোর নামের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে ম্যাগির প্যাকেটের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছিল। পরীক্ষায় দেখা যায়, সেই ব্যাচের ম্যাগির প্যাকেটগুলিতে যে পরিমাণ সিসা ও মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট আছে, তা অনুমোদিত মাত্রার ১৭ গুণ বেশি, যা শরীর ও স্বাস্থ্যের পক্ষে প্রচণ্ড ক্ষতিকারক।

এদিকে ভারতে ম্যাগি নুডলসে ক্ষতিকর সিসা ও মনোসোডাইম গ্লুকোমেট (এমএসজি) পাওয়ার পর বাংলাদেশেও এটি পরীক্ষার উদ্যোগ নিয়েছে খাদ্যের মান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। পরীক্ষায় ক্ষতিকর উপাদান পাওয়া গেলে ম্যাগি নুডলসের লাইসেন্স বাতিল এবং বাজার থেকে সব পণ্য উঠিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

এসএইচএস/আরআইপি