লর্ড সেভেলের বুকে পতিতার পোশাক


প্রকাশিত: ০৩:০৮ পিএম, ২৭ জুলাই ২০১৫

সদ্য সাবেক ডেপুটি স্পিকার লর্ড সেভেল। যিনি পতিতাদের সঙ্গে নগ্ন ছবি আর ভিডিও প্রকাশ হওয়ার পর থেকে বৃটেনের গণমাধ্যমজুড়ে তীব্র সমালোচনার তীরে বিদ্ধ। এমনকি ডেপুটি স্পিকারের পদ থেকে পদত্যাগও করতে বাধ্য হয়েছেন। এরইমধ্যে দ্য সান একের পর এক চাঞ্চল্যকর ছবি প্রকাশ করে চলেছে। সবশেষে যে ছবিটি প্রকাশ করা হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে, লর্ড সেভেল এক পতিতার পোশাক পড়ে আপনমনে ধূমপান করে চলেছেন।

দ্য সান তাদের প্রথমপাতায় বড় করে এ ছবিটি ছাপিয়েছে। শুধু তাই নয়, সংবাদের ভিতরে পতিতাদের সঙ্গে অর্ধনগ্ন-নগ্ন অবস্থার বেশ কয়েকটি ছবিও প্রকাশ করেছে।

প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন থেকে শুরু করে অ্যালেক্স স্যামন্ড পর্যন্ত সকল দলের শীর্ষ নেতাদের যাচ্ছেতাই সমালোচনা করেছেন। তারা বলেছেন, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশের সঙ্গে সাবেক বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ারের ‘প্রেম’ (লাভ অ্যাফেয়ার) ছিল। আর এ জন্যই ইরাক হামলায় যোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। টনি ব্লেয়ারের স্ত্রীকেও বাদ দেননি তারা। চেরি ব্লেয়ার অর্থের জন্য মরিয়া বলে আখ্যা দিয়েছেন।

এই ঘটনায় স্তম্ভিত হয়েছেন হাউজ অব লর্ডসের স্পিকার ব্যারনেস ডি’ সুজা। তিনি বলেছেন, এ ধরনের আচরণ গ্রহণযোগ্য নয়। ডেপুটি স্পিকারের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ ওঠার পর ঘটনাটি তদন্ত করে দেখার জন্যে তিনি পুলিশকেও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, ব্রিটিশ পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষের এই ডেপুটি স্পিকারের নগ্ন ভিডিও ফাঁস হওয়ার পর পদত্যাগ করেছেন তিনি।

আরএস