সবচেয়ে ঝাল মরিচ খেয়ে হাসপাতালে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০৮ এএম, ১২ এপ্রিল ২০১৮

 

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে ঝাল মরিচ খাওয়ার প্রতিযোগিতা হয়েছে। ওই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে সবচেয়ে ঝাল মরিচ হিসেবে পরিচিত ক্যারোলাইনা রিপার খেয়ে কয়েকদিন ধরে প্রচন্ড মাথাব্যথায় আক্রান্ত হবার পর এক ব্যক্তিকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

৩৪ বছর বয়স্ক ওই ব্যক্তি প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে একটি ক্যারোলাইনা রিপার মরিচ খেয়েছিলেন। ক্যারোলাইনা রিপা হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে ঝাল মরিচ। ঝাল মাপার বৈজ্ঞানিক ইউনিট হচ্ছে এসএইচইউ বা স্কোভিল হিট ইউনিট। সাধারণ হালাপেনো মরিচের ঝাল হচ্ছে ২ হাজার ৫শ থেকে ৮ হাজার এসএইচইউ। ক্যারোলাইনা রিপারের ঝাল হলো ১৫ লাখ ৬৯ হাজার ৩শ এসএইচইউ।

দশ বছর গবেষণা করে এড কারি নামে এক ব্যক্তি এটি উদ্ভাবন করেন। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড বইতে ২০১৩ সালে এটি পৃথিবীর সবচেয়ে ঝাল মরিচ হিসেবে স্থান পায়। এই মরিচ খাবার কিছুক্ষণ পরই প্রচন্ড মাথাব্যথা হয়। চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় একে বলা হয় থান্ডারক্ল্যাপ। এতে মস্তিষ্কের ভেতরে রক্তবাহী ধমনীগুলোর আকস্মিক সংকোচন হতে থাকে ফলে মাথার ভেতরে বজ্রপাত হবার মত একটা অনুভুতি হয়।

মাথার ব্যথা শুরু হবার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই তা তীব্রতম স্তরে উঠে আবার নেমে যায় এবং এটা বার বার হতে থাকে। ডাক্তারদের মতে মরিচের কারণে এই ধরণের থান্ডারক্ল্যাপ মাথাব্যথা হবার এটাই প্রথম ঘটনা। তারা বলছেন, মরিচ খেয়ে কারো এ ধরণের লক্ষণ দেখা দিলে তার উচিত হবে সাথে সাথে হাসপাতালে যাওয়া।

কয়েকদিন পর লোকটির মাথাব্যথা আপনাআপনি সেরে যায়। পাঁচ সপ্তাহ পরে সিটি স্ক্যান করে দেখা যায়, তার মস্তিষ্কের ধমনীও আগেকার অবস্থায় ফিরে গেছে। হেনরি ফোর্ড হাসপাতালের ডাক্তার কুলতুঙ্গন গুনাসেকরন বলেন, যারা ক্যারোলাইনা রিপার মরিচ খান- তাদের আমরা তা খেতে নিষেধ করছি না, কিন্তু এই ঝুঁকিগুলোর ব্যাপারে সচেতন থাকা দরকার।

টিটিএন/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :