বাইক চালিয়ে তলোয়ার হাতে চাঁদাবাজি করেন তিনি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:১৭ পিএম, ২৬ মে ২০১৮

বলিউডের ‘ডন’ (১৯৭৮)-এর অমিতাভকে মনে আছে? অথবা ‘ডন’ (২০০৬)-এর শাহরুখ খানকে। কিভাবে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে একাধিকবার পালিয়ে বেঁচেছে তারা। এসব চরিত্র দেখতে দেখতে মনে হয়, সিনেমার পর্দাতেই হয়ত এমনটা সম্ভব। কিন্তু বাস্তবেও দেখা গেছে ঠিক এরকমই একজনকে। তবে তিনি ডন নন; লেডি ডন।

ভারতের গুজরাট প্রদেশের সুরাটের বাসিন্দা অস্মিতা গোহিল। গত সোমবার তলোয়ার হাতে এক পান বিক্রেতাকে হুমকি দিতে দেখা যায় এই তরুণীকে।

lady-don

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সোমবার সকাল ৬টার দিকে সুরাটের বর্ষা সোসাইটির একটি পানের দোকানে গিয়ে ৫০০ টাকা চায় বছর কুড়ির অস্মিতা এবং তার এক বন্ধু। দোকানদার দিতে নারাজ হলে তার দিকে তলোয়ার উচিয়ে ভয় দেখানো হয় এবং জোরজবরদস্তি চালিয়েতার দোকান বন্ধ করা হয়।

পরে একটি মোটরবাইকে করে অস্মিতা ও তার বন্ধু সেখান থেকে চলে যায়। সম্পূর্ণ ঘটনাটি ধরা পড়েছে বর্ষা সোসাইটির ভারাচ্ছা এলাকার সিসিটিভি ক্যামেরায়। স্থানীয় এলাকার পুলিশ গ্রেফতারও করেছে তাদের।

তবে এই ঘটনা প্রথম নয়, এর আগেও অস্মিতা তার তাণ্ডব চালিয়েছে যত্রতত্র। হোলির সময়ে ভিড়ের মধ্যে তাকে এবং তার বন্ধু সঞ্জয় গোহিলকে দেখা গিয়েছে বিলবোর্ডের হুক এবং ছুড়ি নিয়ে একজনকে ভয় দেখাতে। পরে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করলেও, কিছু দিনের মধ্যেই ছাড়া পেয়ে যায় তারা।

lady-don

অস্মিতা গোহিলের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে এরকম ছবিও পাওয়া গেছে, যেখানে তিনি তলোয়ার এবং রিভলভার হাতে নিয়ে পোজ দিয়ে ছবি তুলেছেন। এমনকি তার প্রোফাইলের ‘অ্যাবাউটে’ লেখা রয়েছে- ‘‘হামারে জিনেকা তড়িকা থোড়া আলগ হ্যায়, হাম উমিদ পার নেহি, আপনি জিদ পর জিতে হ্যায়।’’

সোশ্যাল মিডিয়াতে বিনা সংকোচে তার সব কাজ শেয়ারও করেন। সুরাটের অলিতে-গলিতে তাই এই যুবতীর পরিচয় ‘লেডি ডন’ নামেই। যদিও তাকে ‘রিভলভার রানি’ বললেও খুব একটা ভুল হবে না।

এসআইএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :