পাকিস্তানে ফের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালাতে পারে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০৮ এএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

পাকিস্তানে আবারও সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালাতে পারে ভারত। দেশটির সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন।

তার মতে ‘সন্ত্রাসবাদ’ রুখতে আরও একবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের প্রয়োজন, পাকিস্তান যতদিন না সন্ত্রাসবাদ নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ নেবে ততদিন সীমান্তে শান্তি ফিরবে না।

ভারতের দাবি পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেয়ার পর থেকেই ইমরান খান শান্তির কথা বললেও প্রতিনিয়তই সীমান্তে যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করছে পাক-রেঞ্জার্স। এরই প্রতিবাদে পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা বাতিল করেছে ভারত।

একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে জেনারেল বিপিন রাওয়াত পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সুষমা স্বরাজের বৈঠক বাতিলের সরকারি সিদ্ধান্তের প্রশংসা করে বলেন, ‘জঙ্গি নিয়ন্ত্রণে আমাদের পাকিস্তানে আবারও একটি সার্জিক্যাল স্ট্রাইক প্রয়োজন হতে পারে।’

তিনি আরও বলেন, পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি ততদিন সম্ভব নয়, যতদিন তারা নিজেদের সেনা এবং আইএসআইয়ের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ করছে। সীমান্তে ‘জঙ্গিদের’ মদত দেয়া বন্ধ না হলে পরিস্থিতির উন্নতি হবে না।

বিপিন রাওয়াতের দাবি কাশ্মিরে সেনা অভিযানে ক্রমশ হতাশ হয়ে পড়ছে ‘জঙ্গিরা’, আর তাই লুকিয়ে থেকে পুলিশকে টার্গেট করছে।

উল্লেখ্য ২০১৬ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর বিএসএফের তৎকালীন ডিজিএমও সাংবাদিক জানান কাশ্মিরের নিয়ন্ত্রণ রেখা পার হয়ে পাকিস্তানে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালিয়েছে ভারতীয় সেনারা। পরে সেই অভিযানের একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়। ওই ঘটনার দুই বছর পূর্তির প্রাক্কালে ভারতীয় সেনা প্রধান আবারও পাকিস্তানে একই ধরনের অভিযান চালানোর ইঙ্গিত দিলেন।

এর আগে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয় তারা ভারতের সঙ্গে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত আছে। দুই দেশের সেনাবাহিনীর এমন মনোভাব পাক-ভারত সম্পর্কের টানাপোড়েনকে আরও বাড়াবে বৈ কমাবে না।

এমএমজেড/জেআইএম