আইএসআই তরুণীর প্রেমের ফাঁদে ভারতীয় সেনা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৪০ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০১৯

ভারতীয় এক সেনাকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে দেশটির অনেক সংবেদনশীল ও গোপন তথ্য হাতিয়ে নিয়েছেন পাকিস্তানি এক নারী গোয়েন্দা। ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে পাকিস্তানের ইন্টার সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্সের (আইএসআই) ওই গোয়েন্দা ভারতীয় সেনাকে ‘মধুর ফাঁদে’ ফেলেন বলে জানিয়েছে সিএনএন।

আইএসআই’র ফাঁদে পড়া ভারতীয় সেনার নাম সম্বির সিং। তার বয়স ২২ বছর। ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত সংলগ্ন একটি এলাকায় নিয়োজিত ছিলেন তিনি। পাকিস্তানের ওই নারী গোয়েন্দার সঙ্গে অনলাইনে সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। অবশ্য তিনি জানতেন, ভারতীয় সেনাবাহিনীর একজন নারী চিকিৎসকের সঙ্গে প্রেম করছেন।

গোয়েন্দা প্রেমিকা কৌশলে তার কাছ থেকে সেনাবাহিনীর সংবেদনশীল তথ্য হাতিয়ে নেন। বিশেষ করে সেনাসদস্য ও সামরিক ট্যাংকের চলাচল, অবস্থান সম্পর্কে ভুয়া প্রেমিকাকে সব খবর দিয়ে দেন ওই সেনা সদস্য। গত শুক্রবার রাজস্থান রাজ্যের জয়সালমির থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

রাজস্থান পুলিশের এডিজি উমেশ মিশ্রা সিএনএনকে বলেন, ‘পাকিস্তানের এক নারী ফেসবুকের মাধ্যমে ওই সেনা সদস্যকে মধুর ফাঁদে ফেলেন।’ ভারত ও তাদের প্রতিবেশী পাকিস্তান দীর্ঘদিনের সামরিক প্রতিপক্ষ। তারা নানা কৌশলে একে অপরের সংবেদনশীল তথ্য হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে।

কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সিএনএন বলছে, ওই দুই জুটির মধ্যে আদান-প্রদান হওয়া বেশ কিছু যৌনাবেদনময়ী, ঘনিষ্ঠ বার্তা ও ‘অশ্লীল’ ছবি দেখতে পেয়েছেন তারা। আনিকা চোপড়া নামে ওই নারীর ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এখনও সক্রিয় আছে। রাজস্থান পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের এসপি রাজেশ মিনা বলেন, প্রেমিকার কাছ থেকে ভাইয়ের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে টাকা নেন ওই সেনা।

স্পেশাল ব্রাঞ্চের এসপি রাজেশ মিনা আরও বলেন, ‘অর্থের বিনিময়ে ভারতীয় সেনাবাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ ও সংবেদনশীল তথ্য ফাঁস করেন ওই সেনা।’ যদি দোষী সাব্যস্ত হন তাহলে ভারতীয় গোপন নথি সংক্রান্ত আইনে তার তিন বছরের কারাদণ্ড হবে।

এসএ/জেআইএম