স্বামীর পরকীয়া থাকায় যৌনাঙ্গ কেটে দিলেন স্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৩৯ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০১৯

স্বামী পরকীয়া সম্পর্কে আসক্ত। স্ত্রী হিসেবে তা মেনে নেয়া কষ্টকর। তাই স্বামীর গোপনাঙ্গ কেটে দিয়েছেন এক নারী। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যে। রাজ্যের নবরংপুর জেলার উদয়পুর গ্রামের এই ঘটনা নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে বেশ কয়েকটি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে।

মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৯ জানুয়ারি। পরকীয়া সম্পর্কে আসক্ত ওই ব্যক্তির নাম সদাশিব হরিজন। ঘটনার দিন স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া হয় তার। সদাশিব ঘুমিয়ে পড়লে আনুমানিক রাত ১১টায় স্ত্রী তার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। কৌশলে হাত-পা বেঁধে ফেলেন। তারপর একটি ধারালো ছুরি দিয়ে স্বামীর যৌনাঙ্গ কেটে নেন।

অতর্কিত আক্রমণে চিৎকার করতে শুরু করেন সদাশিব হরিজন। মাঝরাতে ছেলের চিৎকার শুনে ঘুম থেকে জেগে ওঠেন পরিবারের বাকি সবাই। তারা দৌড়ে তাদের ঘরে যান। সেখানে গিয়ে তারা দেখতে পান মেঝেতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে সদাশিব। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সদাশিব চাকরি করেন ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তামিল নাডুতে। তিন মাসে আগে বাড়ি ফিরেছিলেন তিনি। অন্য নারীর সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক আছে বলে সন্দেহ করতেন তার স্ত্রী। সন্দেহ থেকে এই মর্মান্তিক ও ভয়াবহ কাণ্ড করে বসেছেন তিনি।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, হাসপাতালে সদাশিবের অবস্থা স্থিতিশীল। কারও সঙ্গে তার কোনও অবৈধ সম্পর্ক নেই এবং তার স্ত্রী নিতান্ত সন্দেহবশেই এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে দাবি করেছেন সদাশিব। এ ঘটনায় সদাশিবের স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় ফৌজদারি বিধির ৩০৭ ও ৩২৬ ধারায় মামলা হয়েছে।

এসএ/জেআইএম