সেতু ভেঙে ড্রেনে বর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৫০ পিএম, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

আজকাল নিজের বিয়েতে অনেকেই নেচে গেয়ে মজা করেন। কিন্তু সেটা যদি কোনো দুর্ঘটনা ডেকে আনে তাহলে সেই মজাটা আর থাকে না। তেমনি এক বর নাচতে নাচতে বিয়ে করতে যাচ্ছিলেন। একটি দুর্বল সেতুর ওপর দিয়ে যাওয়ার সময় ঘটলো এক দুর্ঘটনা। শেরওয়ানি পড়া বর বাকি সবাইকে নিয়ে পড়ে গেলেন ড্রেনের পানিতে।

গত শনিবার দুর্ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের নয়ডা শহরে। নয়ডার হশিয়ারপুর গ্রামের ওই ঘটনায় বরযাত্রীদের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে আট বছর বয়সী দুটি শিশুও রয়েছে।

বরযাত্রীদের সঙ্গে তুমুল নাচতে নাচতে বিয়ে করতে যাবেন এমন স্বপ্নই দেখেছিলেন অমিত যাদব। গাজিয়াবাদ জেলার বাসিন্দা অমিতের সঙ্গে দিল্লির সোনমের বিয়ের দিন ঠিক হয়েছিল শনিবার। সেদিন আনুমানিক রাত সাড়ে নয়টায় বিয়েবাড়িতে পৌঁছান অমিত।

কনের বাড়ির অদূরে গাড়ি থেকে নেমে শুরু হয় নাচ। বিয়েবাড়িতে ঢোকার রাস্তাও ওই একটি। রাস্তায় ড্রেনের জলের উপর একটা নড়বড়ে সেতু। তাতে উঠেই অন্যান্যদের নিয়ে নাচতে শুরু করেন বর অমিত। নাচ শুরু হওয়ার ১০ মিনিটের মাথায় সেতুটি ভেঙে পড়ে। বর অমিতসহ অন্তত পনেরো জন ড্রেনের পানিতে পড়ে যান।

হশিয়ারপুরের স্টেশন হাউস অফিসার মিথিলেশ উপাধ্যায় বলেন, অলিভ গার্ডেন নামের ওই বিয়েবাড়ির মালিক ও পি শর্মাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, গত ১৫ বছর ধরে ওই বিয়েবাড়ি ভাড়া দিয়ে আসছেন তিনি। কখনো এমন ঘটনা ঘটেনি। তবে তিনি কনেপক্ষকে ক্ষতিপূরণের সব টাকা দেয়ার কথা জানিয়েছেন।

কনে সোনমের বাবা পুলিশকে জানিয়েছেন, ‘বিয়েবাড়ি ভাড়া নেয়ার সময় বাড়ির মালিককে সেতুর কথা বলেছিলাম। কারণ বিয়েবাড়িতে ঢোকার অন্য কোনো রাস্তাও ছিল না। তখন তিনি আশ্বাস দিয়েছিলেন। কিন্তু এমন একটা দুর্ঘটনা ঘটলো। বরযাত্রীদের মোবাইল, গয়না সবই ড্রেনের জলে পড়ে গেছে।’

এসএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :