পাক-ভারত উত্তেজনা কমানোই সৌদির লক্ষ্য

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:১৫ পিএম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

পুলওয়ামা জঙ্গি হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে চলতে থাকা ক্রমবর্ধমান উত্তেজনা প্রশমনে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। মঙ্গলবার ভারতে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সফরের আগে এই ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

সোমবার দু'দিনের সফর শেষে পাকিস্তান থেকে ভারতে আসার কথা থাকলেও একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে সৌদিতে ফিরে যান বিন সালমান। মঙ্গলবার রিয়াদ থেকে ভারত সফরে আসবেন তিনি। তবে ইসলামাবাদ থেকে নয়াদিল্লিতে সৌদি যুবরাজের না আসার কোনো কারণ সম্পর্কে এখনো জানা যায়নি।

গত সপ্তাহে ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় দেশটির কেন্দ্রীয় আধা-সামরিক বাহিনীর (সিআরপিএফ) ৪০ সদস্য নিহত হওয়ার পর দুই দেশের মাঝে চরম উত্তেজনা শুরু হয়। পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদ এই হামলার দায় স্বীকার করে।

এই হামলায় পাকিস্তানের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে দাবি করেছে ভারত। একই সঙ্গে দেশটিকে আন্তর্জতিক পরিমণ্ডলে কূটনৈতিকভাবে বিচ্ছিন্নের ডাক দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

অন্যদিকে, পুলওয়ামা হামলায় ইসলামাবাদের কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই বলে জানিয়েছে পাকিস্তান। পাক-ভারত উভয় দেশই মুসলিম অধ্যুষিত কাশ্মীরকে নিজেদের বলে দাবি করে। তবে শুধুমাত্র নিজ ভূখণ্ডে থাকা কাশ্মীরকেই শাসন করে উভয় দেশ।

সোমবার সৌদির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবায়ের বলেছেন, ‘প্রতিবেশি দুই দেশ ভারত-পাকিস্তানের মাঝে উত্তেজনা লাঘবের চেষ্টা করছে সৌদি আরব। দুই দেশের বিবাদমান সঙ্কটের শান্তিপূর্ণ সমাধানের পথ খুঁজে পাওয়া যায় কি-না তা দেখবে রিয়াদ।’

পুলওয়ামা হামলার একদিন পর শুক্রবার পাকিস্তানকে সর্বাধিক সুবিধাপ্রাপ্ত দেশের তালিকা থেকে বের করে দিয়েছে ভারত। একই সঙ্গে পাকিস্তানের আমদানি পণ্যে ২০০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করা হয়।

সূত্র : বিবিসি।

এসআইএস/এমকেএইচ

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :