দিল্লিতে পাক হাই কমিশনে হামলার চেষ্টা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০২ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে নিযুক্ত পাকিস্তানের হাই কমিশনে হামলার চেষ্টা করেছে বিক্ষোভকারীরা। পরে ইসলামাবাদে নিযুক্ত নয়াদিল্লির ভারপ্রাপ্ত হাই কমিশনার গৌরব আহলুওয়ালিয়াকে তলব করে হাই কমিশন ও কমিশনের কর্মকর্তাদের নিরাপত্তার ব্যাপারে ভারতকে কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে পাকিস্তান।

বুধবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, গত সোমবার নয়াদিল্লিতে পাকিস্তান হাই কমিশনের সামনে পাকিস্তানবিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে। ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনীর সামনেই বিক্ষোভকারীরা হাই কমিশন ভবনের প্রবেশদ্বার পর্যন্ত পৌঁছায় এবং প্রবেশদ্বার ধরে ধাক্কাধাক্কি করে।

এ ঘটনার প্রতিবাদ জানাতে ইসলাবাদে ভারতীয় ভারপ্রাপ্ত হাই কমিশনার গৌরব আহলুওয়ালিয়াকে তলব করেন পাকিস্তানের স্পেশাল সেক্রেটারি (এশিয়া প্যাসিফিক) ইমতিয়াজ আহমেদ।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের প্রতিবাদ সত্ত্বেও পাকিস্তান হাই কমিশন, পাকিস্তান হাউস ও হাউসের কর্মকর্তা এবং হাই কমিশনের কর্মকর্তা ও তাদের পরিবারের সদস্যদের হয়রানি এখনো অব্যাহত আছে।

হাই কমিশনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ভেঙে বিক্ষোভকারীদের গেইট পর্যন্ত পৌঁছানোর ঘটনাকে গুরুতর হিসেবে উল্লেখ করে দ্রুত তদন্ত এবং ইসলামাবাদ মিশন ও কর্মকর্তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত এবং পরবর্তীতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ারও আহ্বান জানানো হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় দেশটির কেন্দ্রীয় আধা-সামরিক বাহিনীর (সিআরপিএফ) ৪০ সদস্য নিহত হওয়ার পর দুই দেশের মাঝে চরম উত্তেজনা শুরু হয়।

পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদ এই হামলার দায় স্বীকার করে।এই হামলায় পাকিস্তানের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে দাবি করেছে ভারত। একই সঙ্গে দেশটিকে আন্তর্জতিক পরিমণ্ডলে কূটনৈতিকভাবে বিচ্ছিন্নের ডাক দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

কিন্তু পুলওয়ামা আত্মঘাতী হামলায় পাকিস্তানের কোনো ভূমিকা নেই বলে দাবি করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেছেন, ভারত ওই হামলার যথাযথ প্রমাণ দিলে ব্যবস্থা নেবে পাকিস্তান। যদি ভারত হামলা চালায় তাহলে তার পাল্টা হামলাও পাকিস্তান চালাবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইমরান খান।

সূত্র : এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

এসআইএস/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :