ভারতের শীর্ষ ধনী অনিল আম্বানি দোষী সাব্যস্ত, কারাভোগের আশঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:১০ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ভারতের শীর্ষ ধনকুবের ও রিলায়েন্স কমিউনিকেশনের চেয়ারম্যান অনিল আম্বানিকে আদালত অবমাননার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করেছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী, চার সপ্তাহের মধ্যে টেলিকম জায়ান্ট এরিকসন-ইন্ডিয়ার ৪৫৩ কোটি রূপি পরিশোধ না করলে তিন মাসের কারাদণ্ড হতে পারে তার।

সুইডেনভিত্তিক টেলিকম প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এরিকসন ইন্ডিয়ার সাথে ২০১৪ সালে রিলায়েন্স কমিউনিকেশনের একটি চুক্তি হয়। কিন্তু ২০১৭ সালে রিলায়েন্স কমিউনিকেশন বন্ধ হলে তাদের কাছ থেকে পাওনা ৫৫০ কোটি রুপি ফিরে পেতে ন্যাশনাল কোম্পানি ল আপিল ট্রাইব্যুনালে মামলা করে এরিকসন-ইন্ডিয়া।

পরে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে তারা পাওনা মেটানোর দফরফা করে। কথা অনুযায়ী, গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সেই অর্থ পরিশোধ করার কথা ছিল রিলায়েন্স কমিউনিকেশনের। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে পাওনা টাকা না পেয়ে আদালতের দারস্থ হয় এরিকসন।

গত বছরের অক্টোবরে সেই মামলায় দেয়া রায়ে ১৫ ডিসেম্বর মধ্যে রিলায়েন্স কমিউনিকেশনকে ঋণ পরিশোধের সময়সীমা বেধে দেন সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু আদালতের দেয়া সময়সীমা অনুযায়ী এরিকসনের পাওনা শোধ না করায় রিলায়েন্স কমিউনিকেশনের চেয়ারম্যান অনিল আম্বানিকে দোষী সাব্যস্ত করেন আদলত।

বুধবার এরকিসনের দায়ের করা সেই মামলার শুনানিতে আদালত বলেন, ‘তাদের নির্দেশকে ইচ্ছাকৃতভাবে অমান্য করেছেন অনিল আম্বানি।’ ফলে আদালত অবমাননার দায়ে অনিল আম্বানিকে দোষী সাব্যস্ত করার পাশাপাশি এক কোটি রুপি জরিমানা করেছেন আদালত।

রিলায়েন্স কমিউনিকেশনের পরিচালক সতীশ শেঠ ও রিলায়েন্স ইনফ্রাটেলের চেয়ারম্যান ভিরানিকেও এক কোটি রুপি জরিমানাসহ দোষী সাব্যস্ত করেছেন আদালত। এক মাসের মধ্যে এই জরিমানার টাকা পরিশোধ না করলে কারাভোগ করতে হবে তাদেরকেও।

এসএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :