উভকামের কথা জানাতে কেঁদে ফেলেন বাবা-মা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০৪ এএম, ২২ মার্চ ২০১৯

সমকামিতা ভারতে অপরাধ নয় এমন আইন পাস হলে এটি খুব একটা স্বীকৃত নয়। মানসিকভাবে মেনে নিতে পারেন না অনেকেই। মার্কিন মুলুকও এক্ষেত্রে খুব আলাদা জায়গায় নেই। নিজের জীবনে সেই সত্যিটা বুঝেছেন হলিউড অভিনেত্রী অ্যাম্বার হার্ড।

‘অ্যাকোয়াম্যান’ খ্যাত অভিনেত্রী অ্যাম্বার উভকামী। সেই সত্যিটা জানার পর কেঁদে ফেলেছিলেন তার বাবা-মা। তবে এ অভিনেত্রী স্বীকারও করেছেন।

‘টেক্সাসে আমার বাড়ি। ধর্মীয় আবহে বড় হয়েছি। যখন প্রথম বাড়িতে বললাম, এক নারীকে ভালোবাসি তখন কেঁদে ফেলেছিলেন বাবা-মা। পরে পুরুষের প্রতিও সমান টান অনুভব করেছি। আমার এই সত্ত্বা মেনে নিতে পারেননি তারা’ বলেন অ্যাম্বার।

তবে ঘটনা পরে উল্টে যায়। অভিনয় করে জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর বিশেষত অভিনয়ের জন্য পুরস্কৃত হওয়ার পর মেয়েকে মেনে নিয়েছিলেন অ্যাম্বারের বাবা-মা।

অ্যাম্বার বলেন, ‘ওই ঘটনার পাঁচ বছর পর অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলাম। বাবা-মা গিয়েছিল অনুষ্ঠানে। আমার জার্নি দেখে ওদের দৃষ্টিভঙ্গি বা ধারণা অনেক বদলে গিয়েছিল।’

উল্লেখ্য, সমকামিতা ভারতে আর অপরাধ নয় বলে ঐতিহাসিক রায় দিয়েছে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। সমকামিতাকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসাবে বর্ণনা করা ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারা বাতিল করে দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।

১৮৬১ সালের জারি করা ধারাটি ২০০৯ সালে সমকামিতা অপরাধ নয় বলে রায় দিয়েছিল দিল্লির হাইকোর্ট। তবে তার বিরুদ্ধে আপীল করা হলে ২০১৩ সালে ওই আইনটি বহাল করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের একটি বেঞ্চ। নিজেদের সেই আদেশ আজ বাতিল করে দিল সুপ্রিম কোর্ট।

এমআরএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :