খুলে দেয়া হচ্ছে ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৫০ পিএম, ২২ মার্চ ২০১৯

গত শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চে হামলার পর থেকেই আল নুর এবং লিনউড মসজিদ বন্ধ রাখা হয়েছিল। ভয়াবহ ওই হামলার এক সপ্তাহ পর আজ আল নুর মসজিদের কাছেই হেগলি পার্কে জুমার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে আগামী শনিবারই ওই দুই মসজিদ খুলে দেয়া হবে।

মুসলিমদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে স্থানীয় সময় দুপুর দেড়টার দিকে আজান এবং জুমার নামাজ রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এবং রেডিওতে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

এতে একই সময়ে সারাদেশে আজানের ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠেছিল চারপাশ। মসুল্লিদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করে এবং নিহতদের প্রতি সম্মান জানাতে সমবেত হয়েছিলেন বিভিন্ন ধর্মের কয়েক হাজার মানুষ।

New Zealand

এক সপ্তাহ বন্ধ থাকার পর আগামী শনিবার ওই দুই মসজিদ খুলে দেয়া হচ্ছে। আল জাজিরাকে আল নুর এবং লিনউড মসজিদ খুলে দেয়ার কথা জানিয়েছে নিউজিল্যান্ড পুলিশের এক মুখপাত্র।

গত শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ৫০ জন প্রাণ হারায়। আহত হয়েছে আরও বহু মানুষ। এখনও পর্যন্ত ২৭ জন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর। মসজিদে বন্দুকধারীর অতর্কিত হামলায় শোকের ছায়া নেমে আসে নিউজিল্যান্ডে। ওই হামলার পর দেশজুড়ে সব মসজিদে নিরাপত্তা জারি করা হয়।

New Zealand

এদিকে, গত মঙ্গলবার থেকেই মরদেহ তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা শুরু হয়েছে। এছাড়া গত বুধবার এক সিরীয় শরণার্থী এবং তার ছেলের দাফনের মধ্য দিয়ে ক্রাইস্টচার্চে নিহতদের দাফন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ক্রাইস্টচার্চ কাউন্সিলের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, আজ বিকেলে কমপক্ষে আরও ২৬ জনকে দাফন করা হবে।

ওই মসজিদ দুটি মুসলিম সম্প্রদায়ের দায়িত্বে খুলে দেয়া হবে। তারাই পরবর্তীতে নামাজের বিষয়ে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন। শনিবার ক্রাইস্টচার্চে 'মার্চ ফর লাভ' নামে একটি সমাবেশের আয়োজন করা হবে। ওই সমাবেশে কয়েক হাজার মানুষ অংশ নেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

টিটিএন/এমএস